‘ইউটিউবের সৌজন্যে আমিও মারা গিয়েছি’, এবার বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন সব্যসাচী চৌধুরী

ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma) চলে গিয়েছেন ১০ দিন হলো। তার যাওয়ার পর বিভিন্ন খবর উঠে এসেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানে কোথাও তার যুদ্ধের অ্যাখান রয়েছে তো কোথাও রয়েছে তার এবং সব্যসাচী চৌধুরীর (Sabyasachi Chowdhury) অমর প্রেম গাঁথা। যদিও প্রিয়তমা চোখ বোজার পর সোশ্যাল মিডিয়া ছেড়ে দিয়েছেন প্রেমিক সব্যসাচী।

ঐন্দ্রিলার জন্যই লেখা শুরু করেছিলেন সব্যসাচী। কিন্তু দীর্ঘ ২১ দিন মৃত্যুর সাথে লড়াই করেও যখন বাঁচাতে পারেননি ঐন্দ্রিলাকে, তখন প্রণ করেন আর কোনোদিনই লিখবেন না তিনি। দীর্ঘ ২১ দিন ঐন্দ্রিলাকে বুকে করে আগলে রেখেছিলেন সব্যসাচী। অনেকেই এটা জানতে উৎসুক, এখন কেমন রয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি এক ইউটিউব চ্যানেল দাবি করে যে, ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন সব্যসাচী। এই নিয়ে এক সংবাদমাধ্যম সব্যসাচীর সঙ্গে কথা বলে। অভিনেতা বলেন, ‘ইউটিউবের সৌজন্যে দিন কয়েক আগে নাকি আমিও মারা গিয়েছি!’ এরপর আর প্রায় কিছুই বলতে চাননি অভিনেতা। সোশ্যাল মিডিয়ার অপপ্রচারে যে তিনি খুবই বিরক্ত সেটাও স্পষ্ট হয়েছে তার কথার মাধ্যমে।

এদিকে সব্যসাচী লাইমলাইট থেকে দূরে চলে গেলেও ঐন্দ্রিলার দিদি ঐশ্বর্য শর্মা বোনকে নিয়ে পোস্ট করেই চলেছেন। কখনো তিনি পোস্ট করছেন তাকে সাজিয়ে দেবার অনুরোধে বোনকে ফিরে আসতে, আবার কখনো তার বক্তব্য ঐন্দ্রিলা ছাড়া কে তার মনের কথা বুঝবে!

aindrila sabya

বোনকে উদ্ধৃত করে ঐশ্বর্য লিখেছেন, ‘‘ কে আমাকে নিঃস্বার্থ ভাবে ভালোবাসবে? কে আমার জন্য পুরো পৃথিবীর সাথে লড়বে, আমাকে আগলে রাখবে? আমার যে তুই ছাড়া আর কোনো বেস্ট ফ্রেন্ড নেই। তুই যে আমার জীবনীশক্তি। এই ২৪ বছর এ আমি যে নিজে থেকে কিছুই করতে শিখিনি বুনু। আমি জানি তুই সাবলম্বী কিন্তু তোর দিদিভাই যে তোকে ছাড়া খুব অসহায়!”

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button