সকাল সকাল দুর্যোগ, আসছে ঝমঝমিয়ে বৃষ্টি, তুফান! পশ্চিমবঙ্গের এই ৯ জেলার জন্য সতর্কবার্তা

গত কয়েকদিনে পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) সর্বত্রই বৃষ্টি চলেছে। আর তার ফলে চৈত্র মাসেও সকাল সন্ধ্যা ঠান্ডার অনুভূতি আসছে। জেলায় জেলায় বৃষ্টির সম্ভবনা আগামীকাল অর্থাৎ সোমবার পর্যন্ত। দিঘা (Digha) সংলগ্ন উপকূলবর্তী এলাকা লন্ডভন্ড হয়েছে কালবৈশাখীর (Kalbaisakhi) প্রকোপে। সকাল থেকেই বৃষ্টি চলবে পূর্ব মেদিনীপুরের (Purba Medinipur) বিস্তীর্ণ  এলাকায়।

সকাল থেকেই আকাশের মুখ ভারী। বৃষ্টির সম্ভবনা জানিয়ে রেখেছে হওয়া অফিস। আগামী কয়েক ঘন্টায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা। উত্তরবঙ্গের (North Bengal) বিভিন্ন জেলাতেও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জানানো হয়েছে। এছাড়া বজ্রপাত নিয়েও সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

   

রাজ্যের মোট ৯ জেলায় ভারী বৃষ্টির কথা জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। কলকাতা সংলগ্ন অঞ্চলে এখন কয়েকদিন বৃষ্টি চলবে। যদিও আজ সকালের দিকে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে তবে দুপুর দিকে বেলা বাড়লে আকাশ পরিষ্কার হবে। দু’এক জায়গায় আবার বজ্র বিদ্যুত-সহ বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে। সাথে হাওয়া বইবে ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে।

weather low pressure

সর্বোচ্চ তাপমাত্রা : ৩৪.৯°সেলসিয়াস
সর্বনিম্ন তাপমাত্রা : ২৩.৮° সেলসিয়াস
আর্দ্রতা : ৮৩%
মেঘে ঢাকা : ৮৭%

উত্তরবঙ্গের (South Bengal) মালদা, দুই দিনাজপুর, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার জেলায় বেশি বৃষ্টিপাত হবে। ভারী বৃষ্টির সাথে রয়েছে শিলাবৃষ্টির সম্ভবনা। তাই নিয়ে সতর্ক করেছে হাওয়া অফিস। ২০ এবং ২১ তারিখ দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি এবং আলিপুরদুয়ারে বৃষ্টি চলতে পারে।

দক্ষিণবঙ্গে আবার সর্বত্রই বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হাল্কা থেকে মাঝারি বৃষ্টি চলতে পারে। মঙ্গলবার অবধি বৃষ্টি চলবে সমস্ত জেলায়। বৃহষ্পতিবার থেকে আবহাওয়া বদলের সম্ভাবনা রয়েছে। একইসাথে মৌসম ভবনের তরফে জানানো হয়েছে, মুর্শিদাবাদ, নদিয়া, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, পূর্ব বর্ধমানের কিছু জায়গায় চলবে ভারী বৃষ্টি।

সম্পর্কিত খবর