‘কী আছে ওই ৬০ বছরের বুড়ো মালটার মধ্যে?’ চরম অপমানিত প্রসেনজিৎ, মানসম্মান গেল বুম্বাদার

উত্তম কুমার (Uttam Kumar) পরবর্তী সময়ে বাংলা ছবির জগতে প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জির (Prosenjit Chatterjee) সমখক্ষ কাওকে পাওয়া প্রায় অসম্ভব। উত্তম কুমারের মৃত্যুর পর ইন্ডাস্ট্রিতে যে শূন্য স্থান তৈরি হয় তা পূরণে অগ্রগণ্য ভূমিকা নেন তিনি। আর সেই কারণে অনেকে তাকেই ইন্ডাস্ট্রি বলে ডাকে।

একটা সময় তো এমন হয়ে যায় যে, প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জীর নাম থাকা মানেই সেই সিনেমা সুপারডুপার হিট। হল ভরে যেত মানুষের ভিড়ে। দীর্ঘ তিন দশক ধরে আজও ইন্ডাস্ট্রির সেরা তারকা হিসেবে রয়েছেন তিনি। সেই প্রসেনজিতই কিনা গালি খেলেন!

টলিউডে পা রাখার সময় তার নাম হয় বুম্বাদা। যদিও তিনি ‘পোয়েনজিৎ’ নামে বেশি খ্যাতি লাভ করেন। সেকালে তার অঙ্গভঙ্গি থেকে হাঁটার স্টাইল, সবই দর্শকদের মননে গেঁথে যায়। তাই আজ এতদিন পরেও তার জনপ্রিয়তায় কোনো খামতি নেই। তবে ট্রোল বা মিম থেকে নিস্তার নেই তার।

আসলে শীঘ্রই প্রকাশিত হতে চলেছে সম্রাট শর্মা পরিচালিত সিনেমা প্রসেনজিৎ ওয়েডস ঋতুপর্ণা। সেখানে শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদে আইকনিক জুটিকে দেখা যাবে। সিনেমার ট্রেলার লঞ্চের দিনেও উপস্থিত ছিলেন প্রসেনজিৎ। এদিন তার সাথে ছবির নায়িকা ঈপ্সিতা মুখার্জীকেও দেখা যায়।

সাক্ষাতকারে নানান কথার মাঝে প্রসেনজিৎ বলেন, ভীষণভাবে গালাগাল করা হয়েছে তাকে! এদিকে ছবির ট্রেলারেও দেখা যায় সেই দৃশ্য। রোম-কম এই ছবিতে বহুদিন পর একসাথে দেখা গেছে তাদের দুজনকে। যদিও প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণা সিনেমার নায়ক নায়িকা নন। তারা অভিনয় করবেন ঈপ্সিতা ও ঋষভের মা বাবার চরিত্রে। নায়ক নায়িকার নাম রাখা হয়েছে ঋতুপর্ণা-প্রসেনজিৎ।

ছবির কাহিনী অনুযায়ী নায়িকা নাকি প্রসেনজিতের ফ্যান। তার বিরাট ইচ্ছে রয়েছে বুম্বাদাকে বিয়ে করার, কিন্তু সেটা আর সত্যি হলোনা। আর তার এই অলীক চিন্তাভাবনায় বিরক্ত হয়ে তার বিয়ে দিয়ে দেয় প্রসেনজিৎ নামেরই এক ব্যক্তির সাথে। আর তার বিয়ের পর অন্য কারোর স্ত্রী হতে রাজি নায়িকা। আর এতেই নাকি খচে বোম হয়ে গিয়েছে নায়ক। আর তখনই রেগে গালাগালি করেছে প্রসেনজিৎকে।

prosenjit chatterjee11640342548

আর সেই কারণেই নাকি লজ্জায় পড়ে গিয়েছিলেন সকলে। নায়ক প্রসেনজিৎ একসময় বিরক্ত হয়ে জিজ্ঞাসা করে বসেছে, ‘কী আছে ওই ৬০ বছরের বুড়ো মালটার মধ্যে?’ এখানেই থেমে নেই, তিনি আরো বলেন, ‘নেতাজিকে নিয়ে ছাবলামো মারা মানুষটাকে তোরা হিরো বলতে পারিস আমি না’। এখান থেকেই স্পষ্ট যে, ছবিতে কিছুটা হলেও অপমান করা হয়েছে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button