রেল স্টেশনের নামের পর লেখা থাকে IBP! এর মানে কী? জানেন না ৯৯% মানুষ

ভারতীয় রেলকে (Indian Railways) দেশের মেরুদন্ড বলা হয়। বহু মানুষের জীবন এই ভারতীয় রেল ছাড়া এককথায় অচল। এই রেল ব্যবস্থা কারোর খাদ্য জোগানোর অন্যতম মাধ্যম তো অন্যদিকে এই রেল ব্যবস্থা কারোর ভ্রমণের মাধ্যম।

ভারতীয় রেলকে নিয়ে মানুষের কৌতূহলের শেষ নেই। ভারতীয় রেলের জীবন্ত ইতিহাস চিত্তাকর্ষক এবং অনেক অজানা তথ্যে পরিপূর্ণ, যা যে কাউকে অবাক করতে পারে। ভারতীয় রেল ১৬৩ বছরেরও বেশি পুরনো ঐতিহ্য নিয়ে গর্ব করে। ভারতীয় রেল দিনে গড়ে ১২,৮১৭টি ট্রেন চালায়। এই বিশাল ব্যবস্থা দেশের জন্য লাইফলাইন হিসেবে কাজ করে।

   

ট্রেনে দেশের প্রায় ২ কোটি ৪০ লাখ যাত্রী যাতায়াত করেন। অনেক চ্যালেঞ্জ সত্ত্বেও, এটি প্রকৌশল দক্ষতা, সাংস্কৃতিক সংহতকরণ এবং যৌক্তিক শ্রেষ্ঠত্বের সাক্ষ্য, যা কেবল পরিবহন ব্যবস্থা হিসাবে নয় বরং দেশের ঐক্যের প্রতীক হিসাবে তার উত্তরাধিকারকে স্থায়ী করে। যাইহোক, দেশে এমন কিছু রেলস্টেশন রয়েছে, যেখানে তার নামের পিছনে লেখা থাকে আইবীপী। এই আইবীপী শব্দের অর্থ কী জানেন? যদি না জেনে থাকেন তাহলে আপনার জন্য রইল আজকের এই প্রতিবেদনটি।

বাংলায় এমন স্টেশন মুর্শিদাবাদ জেলার জঙ্গিপুর লাইনে অবস্থিত। স্টেশনটির পুরো নাম হল আহিরন (আইবীপী)। অ্যাবসলিউট ব্লক সিস্টেমে দুটি স্টেশনের মধ্যে কেবল একটি ট্রেন চলাচলের অনুমতি দেওয়া হয়, যা লাইনের ক্ষমতা অনেকাংশে সীমাবদ্ধ করে। দুটি স্টেশনের মধ্যে লাইনের ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য, ইন্টারমিডিয়েট ব্লক পোস্ট (IBP) ব্যবহার করা হচ্ছে যা ব্লক বিভাগটিকে দুটি অংশে বিভক্ত করে।

rail ibp station

ইন্টারমিডিয়েট ব্লক পোস্ট বা আইবীপী ব্যবহার করে সুরক্ষা নিশ্চিত করতে একই দিকে দুটি স্টেশনের মধ্যে দুটি ট্রেন চলাচল করতে পারে। এর ফলে স্টেশনের ট্রেন ক্রসিংয়ে দাঁড়িয়ে রেল চলাচলের সময় সাশ্রয় হয়। এছাড়াও, দুটি স্টেশনের মধ্যে একই দিকে দুটি ট্রেন চলাচল লাইনের ক্ষমতা বৃদ্ধি করে, যার ফলে আরও বেশি সংখ্যক ট্রেন চলাচল করতে সক্ষম হয়।

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর