IIT বা IIM নয়, বাংলার সাধারণ ডিগ্রি কলেজের ৩২ পড়ুয়াকে মোটা টাকার চাকরি দিল টাটা

চাকরি প্রার্থীদের জন্য রইল বাম্পার সুখবর। এক কথায় বহু পড়ুয়ার স্বপ্ন পূরণ করল টাটা গোষ্ঠী। এক ধাক্কায় ৩২ জন পড়ুয়া, যাদের একদমই সাধারণ ডিগ্রি রয়েছে তাঁদের চাকরি দিল টাটা। এই চাকরি প্রাপকদের মধ্যে বাঙালিও রয়েছে। একদম সাধারণ ডিগ্রি থাকা সত্ত্বেও টাটার মতো জায়গায় কাজ করার সুযোগ পেয়ে বেজায় খুশি সকলে।

কারা কারা চাকরি পেল, টাটার কোন জায়গায় চাকরি পেল সেটা জানতে কি ইচ্ছুক? তাহলে বিস্তারিত জানতে ঝটপট পড়ে ফেলুন এই প্রতিবেদনটি। ন্যাক বা National Assessment and Accreditation Council-এর তালিকায় রয়েছে খলিসানী মহাবিদ্যালয়। এটি হুগলির চন্দননগর বৌবাজার এলাকায় অবস্থিত। আর এই কলেজটি বি প্লাস-প্লাস ক্যাটাগরির কলেজ। বছরের বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে প্লেসমেন্টের জন্য বিভিন্ন শিবিরের আয়োজন করা হয়।

   

এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। বর্তমান সময়ে চাকরি পাওয়াটা কিন্তু মুখের কথা নয়। তারপর টাটা গোষ্ঠীর টিসিএসের মতো জায়গায় চাকরি পাওয়া তো অনেকের কাছে স্বপ্ন থাকে। কপাল ভালো থাকলে চাকরি মেলে তো আবার কপাল যদি খারাপ থাকে তাহলে ডিগ্রির পর ডিগ্রি হাসিল করেও চাকরি মেলে না। যদিও এই খলিসানী মহাবিদ্যালয়ের বহু পড়ুয়ার কপাল খুলে গেল। এই মহাবিদ্যালয়ে আর্টস,কমার্স,সায়েন্স মিলিয়ে প্রায় আড়াই হাজারের মতো পড়ুয়া।

জদিও এবার ৩২ জনমতো পড়ুয়া TCS চাকরি করার সুযোগ পেলেন, ফলে বেজায় খুশি সকলে। এই প্রসঙ্গে কলেজের অধ্যক্ষ অর্ঘ্য বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, “রাজ্য সরকারের উৎকর্ষ বাংলা কলেজের সঙ্গে টাটার সংস্থা টিসিএস-এর যোগাযোগ করিয়ে দেয়। গত ১০ মার্চ কলেজে ক্যাম্পাসিং হয়। ৪৫৩ জন নাম নথিভুক্ত করেন। ১০৯ জনকে বেছে নিয়ে তাঁদের পরীক্ষা নেয় টিসিএস। তাদের মধ্যে ৩২ জনকে নির্বাচন করে। আজ সেই চাকরি প্রার্থী পড়ুয়াদের ই-মেল করে জানিয়ে দেওয়া হয় চাকরি হয়ে গিয়েছে।”

যারা চাকরি পেয়েছেন তাঁদের মধ্যে অনেকেই জানাচ্ছেন যে কলেজ পাশ করে ভালো কিছু করার ইচ্ছা ছিল, কিন্তু এক ধাক্কায় টিসিএসে চাকরির সুযোগ মিলবে সেটা কেউ ভাবতেও পারেননি।

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর