অতিরিক্ত কোচ, বাড়ল ট্রেনের সংখ্যাও! যাত্রীদের জন্য ৫টি বড় ঘোষণা পূর্ব রেলের

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সব কিছু উন্নত হচ্ছে। পিছিয়ে নেই ভারতীয় রেল (Indian Railways)। সময়ের সঙ্গে তাল মেলানোর জন্য ছুটছে ট্রেন (Train)। আগের থেকে যাত্রীদের কথা মাথায় রেখে নেওয়া হয়েছে একাধিক ব্যবস্থা। ট্রেনের স্টপেজ বাড়ানো হয়েছে, ইঞ্জিনের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে আরও অনেক কোচ, সেই সঙ্গে বাড়ানো হচ্ছে ট্রেনের গতি।

ভারতীয় রেলে কোন কোন বিষয়ে করা হচ্ছে উন্নতি?

• ট্রেনের গতি: আপগ্রেডেড মেল-এক্সপ্রেস ট্রেনগুলি শীঘ্রই প্রতি ঘন্টায় ১৬০ কিলোমিটার গতিতে ট্র্যাকগুলিতে ছুটবে বলে আশা করা হচ্ছে। পুরানো আইসিএফ কোচগুলির বর্তমান সর্বোচ্চ গতি প্রতি ঘন্টা ১১০ কিলোমিটার থেকে উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি পেয়েছে। পুরানো আইসিএফ (ইন্টিগ্রাল কোচ ফ্যাক্টরি) কোচগুলি তাদের ভারী লোহা নির্মিত বডির জন্য পরিচিত। পুরনো এই কোচগুলো কম গতির জন্য ডিজাইন করা হয়েছিল।

   

• আপগ্রেড করা কোচ: পুরনো ভারী কোচগুলো বদলে ফেলা হচ্ছে ধীরে ধীরে। পুরানো আইসিএফ কোচগুলি একেবারেই সরিয়ে এলএইচবি কোচে পরিণত করা হবে। পুরানো আইসিএফ কোচগুলি রক্ষণাবেক্ষণের জন্য আরও ব্যয়বহুল ছিল এবং বসার ক্ষমতা কম। বন্দে ভারত কোচগুলি আধুনিক নকশার কারণে সম্ভাব্যভাবে আরও বেশি আসন ব্যবহারের জন্য দিতে পারবে।

• বাড়ছে স্টপেজ: ১১ টি এক্সপ্রেস ট্রেনে বিভিন্ন স্টেশনে অতিরিক্ত স্টপেজের ঘোষণা হয়েছে। এর ফলে মির্জা চৌকী, বরাকর, দুবরাজপুর, পাকুড়, এই সব স্টেশনে এখন আরও অনেক ট্রেন দাঁড়াচ্ছে।

• অতিরিক্ত কোচ: বিভিন্ন মেল ও এক্সপ্রেস ট্রেনে মোট ৪১৫ টি অতিরিক্ত কোচ সংযোজিত করা হয়েছে। যার ফলে যাত্রীরা আরও সহজে আসন বুক করতে পারবেন।

• ট্রেনের যাত্রা পথ বাড়ানো: ১৩৪১৩ /১৩৪১৪ ও ১৩৪৮৩/১৩৪৮৪ মালদা টাউন – দিল্লি ফারাক্কা এক্সপ্রেস ভাতিন্দা জংশন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। ১৮৬১৭/১৮৬১৮ রাঁচী – নিউ গিরিডি এক্সপ্রেস মধুপুর পর্যন্ত সম্প্রসারিত করা হয়েছে।

সম্পর্কিত খবর