আর রইল না চিন্তা, লটারি লাগল সিভিক ভলান্টিয়ারদের! বড় ঘোষণা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

নতুন বছরের শুরুতেই সিভিক ভলেন্টিয়ারদের (Civic Volunteer) উদ্দেশ্যে বড়সড় ঘোষণা করে সকলকে চমকে দিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। রাজ্য সরকারের (Government Of West Bengal) এক সিদ্ধান্তের জেরে খুশিতে লাফাচ্ছেন সিভিক ভলেন্টিয়াররা। সিভিক ভলেন্টিয়ার হিসেবে কাজ করেন তাহলে আজকের এই প্রতিবেদনটি রইল শুধুমাত্র আপনার জন্য।

পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ ওয়েলফেয়ার কমিটির তত্ত্বাবধানে ব্যারাকপুরের লাটবাগানে প্রায় ৩০,০০০ সিভিক ভলেন্টিয়ারদের নিয়ে একটি বিশেষ সম্মেলন করা হয়। সেখানে টেলিফোনে নিজের বক্তব্য পেশ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আর টেলিফোনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যা বললেন সেটা শুনে সকলেই চমকে যান।

   

ফোনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ‘এখন রাজ্য সরকার প্রায় ২ লক্ষ সিভিক ভলেন্টিয়ারকে কাজ দিয়েছে। সেই সিভিক ভলেন্টিয়াররা ৬০ বছরের পর অবসর নিতে পারেন। এমনকি তাদের ৫৩০০ টাকা করে বোনাস অবধি দেওয়া হয়েছে। এছাড়া চাকরিরত অবস্থায় যদি কোনও সিভিক ভলেন্টিয়ারের মৃত্যু হয় তাহলে তার পরিবারের সদস্যেরকে চাকরি দেওয়া হবে।’

এরপরই মুখ্যমন্ত্রী যেটা বলেন সেটা শোনার জন্য মনে হয় কেউ খুব একটা তৈরিও ছিলেন না, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ‘আপনাদের একাধিক দাবি ইতিমধ্যেই পূরণ করা হয়েছে, বাকি দাবিও পূরণ করে দেব।’ সিভিক ভলেন্টিয়ার নিয়োগের ১০ শতাংশ সংরক্ষণেরও সুবিধা দেওয়া হয় রাজ্য সরকারের তরফে।

civic volunteer

যদিও বা এবার শোনা যাচ্ছে এই সংরক্ষণের সংখ্যা এক ধাক্কায় অনেকটাই বৃদ্ধি পেতে পারে বলে খবর। এছাড়া মন্ত্রিসভার বৈঠকে সিভিক ভলান্টিয়ারদের স্থায়ী হোমগার্ডের চাকরি দেওয়ার প্রস্তাব রাখা হয়েছে। সরকারের একের পর এক পদক্ষেপে স্বাভাবিকভাবেই সকলের মুখে যে হাসি ফুটতে চলেছে তা বলাই বাহুল্য।

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর