আধার অতীত! নয়া কার্ড দেবে পশ্চিমবঙ্গ সরকার, ঘোষণা খোদ মমতার, কীভাবে পাবেন?

আধার কার্ড (Aadhaar) বাতিলের হিড়িক পড়ে গিয়েছে রীতিমতো বাংলায় (West Bengal)। আর এই ঘটনাকে ঘিরে সাধারণ মানুষের মধ্যে উৎকণ্ঠার শেষ নেই। সম্প্রতি বর্ধমানের জামালপুরের বহু পরিবারের কাছে বাড়ি বয়ে চিঠি এসেছে। আর সেই চিঠি অনুযায়ী, তাদের আধার কার্ড নিষ্ক্রিয় করে দেওয়া হয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই সকলের মাথায় হাত পড়েছে।

জানা যাচ্ছে, বেশিরভাগ সংখ্যালঘু, মতুয়া, তফসিলি জাতি, উপজাতিদের এই আধার কার্ড বাতিল করা হয়েছে। এদিকে এহেন ঘটনা দেখে রাজ্যের আরো বহু মানুষ আশঙ্কার কালো মেঘ দেখছেন। অনেকেই ইতিমধ্যে ভাবতে শুরু দিয়েছেন যে এবার তাঁদের আধার কার্ড বাতিল হয়ে যাবে না তো? এই ঘটনার মাঝেই একটি বড় ঘোষণা করে ফেললেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তিনি রীতিমতো কেন্দ্রীয় সরকারকে চ্যালেঞ্জ করে বড় প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন রাজ্যবাসীকে।

আধার নিয়ে বড় ঘোষণা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

   

আজ সোমবার এক টুইট বার্তায় মুখ্যমন্ত্রী লেখেন, ‘আমি বেপরোয়াভাবে আধার কার্ড নিষ্ক্রিয় করার তীব্র নিন্দা করছি, বিশেষত পশ্চিমবঙ্গে এসসি, এসটি এবং ওবিসি সম্প্রদায়কে টার্গেট করা হচ্ছে।
কোনও আগাম তদন্ত বা রাজ্য সরকারের সঙ্গে আলোচনা না করেই কেন্দ্রের একতরফা আধার কার্ড নিষ্ক্রিয় করার সিদ্ধান্ত লোকসভা নির্বাচনের আগে সুবিধাজনক কল্যাণমূলক প্রকল্পগুলি থেকে যোগ্য সুবিধাভোগীদের বঞ্চিত করার একটি অশুভ চক্রান্ত।’

তিনি বলেন, ‘আমরা সবাই ভারতের নাগরিক। প্রত্যেক বাসিন্দা আধার কার্ড থাকুক বা না থাকুক, জিওডব্লিউবি-র কল্যাণমূলক সুবিধা নিতে পারবেন।’ এখানেই শেষ নয়, কেন্দ্রকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে নতুন কার্ড দেওয়ার ঘোষণা করলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাতিল হওয়া কার্ডের বদলে নতুন কার্ড দেবে সরকার বলে জানিয়ে দেওয়া হল।

তিনি জানান, ‘গরিব মানুষকে বাঁচাতে নয়া পোর্টাল খোলা হচ্ছে। মঙ্গলবার থেকে পোর্টাল চালু হচ্ছে। কোনও গরিব মানুষকে আমরা না খেয়ে মরতে দেব না।’ মুখ্যমন্ত্রী জানান, ‘আধার গ্রিভ্যান্সেস পোর্টাল’ নামের একটি পোর্টাল তৈরি করা হয়েছে। আগামিকাল থেকে সেই পোর্টালে আবেদন প্রক্রিয়া চালু হচ্ছে।’

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর