আজ থেকে অবরোধ! টানা চারদিন শিয়ালদায় বাতিল প্রায় ৩০০ ট্রেন, বিজ্ঞপ্তি জারি পূর্ব রেলের

আর কয়েকদিনের মধ্যেই চরম সমস্যার সম্মুখীন হতে চলেছেন রেল যাত্রীরা। কারণ এবার বড় পদক্ষেপ নিয়েছেন রেল কর্তারা। মূলত পুরনো পেনশন (Pension) ফিরিয়ে আনতে ১ মে থেকে রেল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ধর্মঘট হবে অনির্দিষ্টকালের জন্য। দিল্লিতে ওল্ড পেনশন স্কিম পুনরুদ্ধারের জন্য যৌথ ফোরামের বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ১৯ মার্চ ধর্মঘটের নোটিশ দেবে ফোরাম। ধর্মঘটের ছয় সপ্তাহ আগে নোটিশ দিতে হবে।

এই বিশ্যে ফোরামের আহ্বায়ক তথা অল ইন্ডিয়া রেলওয়ে মেনস ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক শিবগোপাল মিশ্র বলেছেন, এই ধর্মঘট শুধু নির্ণায়ক নয়, ঐতিহাসিকও হবে। বুধবার দিল্লিতে অনুষ্ঠিত বৈঠকে রাজ্য কর্মচারীদের প্রতিনিধিরাও অংশ নিয়েছিলেন। সারা দেশের রেল কর্মচারীদের পাশাপাশি রাজ্যের কর্মচারীরাও এই ধর্মঘটে অংশ নেবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট অব্যাহত থাকবে বলে জানান তারা। শিবগোপাল মিশ্র বলেছিলেন যে, ‘সরকার ক্রমাগত পুরানো পেনশনের দাবি উপেক্ষা করছে। পুরনো পেনশন আমাদের অধিকার। নিউ পেনশন স্কিম আমাদের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়।’ পুরনো পেনশন পুনর্বহালের প্রশ্নে ধর্মঘটের ডাক দিয়ে নভেম্বর ও ডিসেম্বরে গোপন ব্যালটের আয়োজন করা হয়। ৯৮ শতাংশেরও বেশি রেলওয়ে কর্মচারী ধর্মঘটের পক্ষে ভোট দিয়েছেন। তখনই ধর্মঘট হবে বলে সিদ্ধান্ত হয়। লখনউতেও ভোট দিয়েছেন উত্তর ও উত্তর-পূর্ব রেলের কর্মীরা।

   

এদিকে রেল কর্তাদের এহেন আন্দোলনের ফলে আগামী দিনে যে সাধারণ রেল যাত্রীরা চরম ভোগান্তির শিকার হবেন তা আর নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে এখানেই কিন্তু শেষ নয়, আপনিও যদি নিত্য রেলযাত্রী হয়ে থাকেন তাহলে সাবধান হয়ে যান। কারণ এবার বহু ট্রেন বাতিল হবে বলে বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানালো পূর্ব রেল (Eastern railway zone)। শিয়ালদহ (Sealdah) শাখায় বহু ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। পূর্ব রেলের তরফে জানানো হয়েছে, আগামী ১ মার্চ থেকে ৪ মার্চ পর্যন্ত দমদম স্টেশনে নন-ইন্টারলকিংয়ের কাজ চলবে। অর্থাৎ সপ্তাহান্তে একগুচ্ছ ট্রেন বাতিল থাকবে বলে খবর।

local trains

বাতিলের তালিকায় রয়েছে একের পর এক লোকাল ট্রেন থেকে শুরু করে বহু এক্সপ্রেস ট্রেন। পূর্ব রেলের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, শিয়ালদহ থেকে রানাঘাট, হাবড়া, হাসনাবাদ, ডানকুনি, মধ্যমগ্রাম, দমদম ক্যান্টনমেন্ট, দত্তপুকুর, বারাসত, গোবরডাঙা, ব্যারাকপুর, নৈহাটি, বর্ধমান, কাটোয়া, বজবজ, ঠাকুরনগর এবং বনগাঁ পর্যন্ত আপ এবং ডাউন লাইনে যে ট্রেন চলাচল করে, তা ২ মার্চ শনিবার একটি বড় অংশে ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। শনিবার চলবে না শিয়ালদহ-আসানসোল ইন্টারসিটি এক্সপ্রেস, শিয়ালদহ-সিউড়ি মেমু এক্সপ্রেস এবং শিয়ালদহ-জঙ্গিপুর রোড এক্সপ্রেস।

এছাড়া রবিবার ছুটির দিনে এমনিতেই ট্রেন কম থাকে। তার অপর শিয়ালদহ শাখায় বাতিল থাকবে রানাঘাট, হাসনাবাদ, হাবড়া, ডানকুনি, গোবরডাঙা, দত্তপুকুর, নৈহাটি, ব্যারাকপুর, বর্ধমান এবং কাটোয়া লোকালের আপ এবং ডাউন ট্রেন। বাতিল করে দেওয়া হয়েছে শিয়ালদহ-সিউড়ি মেমু এক্সপ্রেস ট্রেনকেও। শুক্রবার থেকে রবিবার পর্যন্ত বনগাঁ-বারাসত লোকাল শিয়ালদহ পর্যন্ত চলবে। বনগাঁ-শিয়ালদহ লোকাল চলবে বারাসত পর্যন্ত। কল্যাণী সীমান্ত লোকাল কল্যাণী স্টেশন পর্যন্ত চলবে। শনিবার এবং রবিবার চক্ররেল পরিষেবাও বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে পূর্ব রেল।

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর