পাকিস্তানের পেটে লাথি! বড় ঝটকা দিল বন্ধু চিন, বেজিংয়ের অ্যাকশনে মাথায় হাত শাহবাজের

ক্রমে অবনতি হচ্ছে দুই দেশের মধ্যেকার সম্পর্ক। এক সময় যাকে ভালো বন্ধু বলে মনে করছিল পাকিস্তান, এখন সেই চিন হয়ে উঠেছে ভারতের পড়শি দেশের মাথা ব্যাথার কারণ। বেঁকে বসতে শুরু করেছে চিন। লাল দেশের বেঁকে বসার পিছনে যথেষ্ট কারণ রয়েছে। সম্প্রতি পাওয়া আপডেট অনুযায়ী, পাকিস্তানের মাটিতে কাজ বন্ধ করে দিচ্ছে শি জিনপিং-এর দেশ।

পাকিস্তানি সন্ত্রাসবাদী হামলায় চিনা শ্রমিকদের মৃত্যু হয়েছে। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, বোমা হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন পাঁচজন চিনা শ্রমিক। এরপর থেকে সম্পর্কের অবনতি হতে শুরু করেছে। পাকিস্তান সরকারের পক্ষ থেকে বন্ধু চিনের রাগ ভাঙানোর চেষ্টা করা হয়েছে যথেষ্ট। কিন্তু তাতে কাজের কাজ কিছু হয়নি বলেই এখন মনে হচ্ছে। অ্যাকশন নিতে শুরু করেছে চিন সরকার।

   

জানা যাচ্ছে, পাকিস্তানে উন্নয়নমূলক কাজের জন্য একটি প্রোজেক্ট শুরু করেছিল চিন। কাজটা সম্পন্ন হলে চিন, পাকিস্তান দুই দেশই লাভবান হতে পারতো। কিন্তু অতর্কিত এই হামলার ফলে চিনা সরকারের মতিগতি এখন অন্যরকম। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে প্রায় ২ হাজার কর্মচারীর কাজ। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, সন্ত্রাসবাদী হামলার পর চিন পরিচালিত হাইড্রো পাওয়ার প্রোজেক্ট থেকে পাকিস্তানের প্রায় ২ হাজার শ্রমিককে কাজ থেকে বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। যার ফলে ফাঁফরে পড়েছে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়ায় নির্মিত বাঁধের ধারণ ক্ষমতার বাড়ানোর জন্য কাজ চলছিল। এই প্রকল্পের নাম দেওয়া হয়েছে তারবেলা টি৫ এক্সটেনশন। চিনের সরকারের পাওয়ার কনস্ট্রাকশন কোম্পানি অব চায়না (পিসিসিসি) এই প্রকল্প পরিচালনা করার জন্য কাজ করছিল। ১৫৩০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের এই প্রকল্পের কাজ ২০২৬ সালের মধ্যে শেষ হওয়ার কথা। প্রকল্প সম্পন্ন করার জন্য বিশ্বব্যাংক ও এশীয় ব্যাংক থেকে অর্থ নেওয়া হয়েছে বলেও খবর। এমন একটি মেগা প্রোজেক্টে ঘটেছে বিস্ফোরণ। মৃত্যু হয়েছে কর্মীদের। এরপর চিন সরকারের ক্ষুব্ধ হওয়া অস্বাভাবিক নয়।

দ্রুত অ্যাকশন নিয়ে প্রায় ২ হাজার কর্মীকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে এই কাজ থেকে। এই সিদ্ধান্তের পেছনে ২৬ মার্চ খাইবার পাখতুনখোয়ায় হওয়া হামলাকেই মূল কারণ হিসেবে দেখা হচ্ছে। এখন দেখার বিষয়, কত দ্রুত এগোই এই প্রোজেক্ট।

ছোটোবেলা থেকে খেলাধুলোর প্রতি ভালোবাসা। এখন পেশা। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে লিখছে বিগত কয়েক বছর ধরে।

সম্পর্কিত খবর