উত্তরবঙ্গ যাওয়ার আগে সাবধান, ট্রেনের টাইম বদলাল রেল! টিকিট কাটার আগে দেখুন সময়সূচী

শীতের মরসুম (Winter) চলছে। আর এই শীতের মরসুমে কোথাও ঘুরতে না গেলে জীবন যেন বৃথা মনে করেন ভ্রমণপিপাসুরা। আপনিও কি এই শীতে কোথাও ঘুরতে যাওয়ার প্ল্যান করছেন? বিশেষ করে উত্তরবঙ্গ (North bengal) যাওয়ার প্ল্যান করছেন? তাহলে ট্রেনের টিকিট (Ticket) কাটার আগে অবশ্যই পড়ে নিন এই প্রতিবেদনটি।

উত্তরবঙ্গ…নামটা শুনলেই চোখের সামনে উঁচু উঁচু পাহাড়, লেক, উঁচু নিচু রাস্তা, খাবার-দাবার ইত্যাদি আরও কত কিছুর কথা মনে পড়ে যায়। উত্তরবঙ্গের মধ্যে দার্জিলিং (Darjeeling) ভ্রমণের জন্য খুব সুন্দর জায়গা। পর্যটকদের ভ্রমণ তালিকায় এই জায়গার নাম থাকবেই থাকবে। এখানে উঁচু ও সবুজ পাহাড়, চা বাগান, ঘন বন ও নদী এই জায়গাগুলোর সৌন্দর্য যেন এক ধাক্কায় আরও বৃদ্ধি করে। এই জায়গাগুলো প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে পরিপূর্ণ।

   

উত্তরবঙ্গের সৌন্দর্য যে কারোর মন কেড়ে নেয়। তবে একটু দাঁড়ান, আপনিও যদি আগামী কিছুদিনের মধ্যে উত্তরবঙ্গে, বিশেষ করে ট্রেনে করে উত্তরবঙ্গ যাওয়ার পরিকল্পনা করে থাকেন তাহলে এখুনই তা করবেন না। কারণ উত্তরবঙ্গগামী বেশ কিছু ট্রেন নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতীয় রেল (Indian Railways)। আপনিও যদি ট্রেনের টিকিট বুক করতে গিয়ে হয়রানির শিকার না হতে চান তাহলে টিকে থাকুন এই প্রতিবেদনটিতে।

আসলে রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বেশ কিছু ট্রেন দেরীতে চলবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই দুটি ট্রেন হল কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস (Sealdah Kanchanjungha Express) ও দীঘা-মালদহ টাউন এক্সপ্রেস (Digha Malda Town Express)। হ্যাঁ ঠিকই শুনেছেন। আসলে মালদহ-নিউ ফরাক্কা (New Farakka Junction) সেকশনে ট্র্যাক মেরামতির কাজ শুরু হবে। যে কারণে বেশ কয়েকটি ট্রেনের সময়ের পরিবর্তন করা হয়েছে। রেলের তরফে জানানো হচ্ছে, এক ধাক্কায় মোট ১০ দিন দেরীতে চলবে কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস।

train north bengal

কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস ট্রেনটি সকাল ৬টা ৫০ মিনিটের বদলে আগামী ১০ দিন সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে শিয়ালদহ থেকে যাত্রা শুরু করবে । ৫, ৭, ১০, ১২, ১৪, ১৭, ১৯, ২১, ২৪ এবং ২৬ জানুয়ারি এক ঘণ্টা দেরীতে চলবে ট্রেন। অন্যদিকে আজ অর্থাৎ বৃহস্পতিবার থেকে চারদিন ট্রেন নম্বর ১৩৪১৭ দীঘা-মালদহ টাউন এক্সপ্রেস যাত্রা পথে আধঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকবে। সংস্কার কাজের জেরেই ট্রেন চলাচলে এই বিঘ্ন ঘটবে। ৫, ১২, ১৯ এবং ২৬ জানুয়ারি এই চারদিন।

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর