DA বৃদ্ধির পর সামনেই আরও চমক! বড় কিছু অপেক্ষা করছে সরকারি কর্মীদের জন্য

কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের (Central Government Employee) মহার্ঘ ভাতার (Dearness Allowance) অপেক্ষার অবসান ঘটেছে। বৃহস্পতিবার, কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা মহার্ঘ ভাতা ৪ শতাংশ বৃদ্ধির অনুমোদন দিয়েছে। এর ফলে এখন কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা ৫০ শতাংশ হয়েছে।

২০২৪ সালে কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতার (ডিএ) গণিতে পরিবর্তন আসতে চলেছে। কার্যত ১ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হওয়া মহার্ঘ ভাতার চিত্র স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। কর্মচারীদের ৫০ শতাংশ ডিএ দিতে হবে। ২০২৪ সালের জানুয়ারি থেকে কেন্দ্রীয় কর্মীরা মহার্ঘ ভাতার ৫০ শতাংশ পাবেন। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, মহার্ঘ ভাতার ৫০ শতাংশ পর তা মূল বেতনের সঙ্গে মিশে যাবে এবং শূন্য থেকে গণনা শুরু হবে। তবে এ বিষয়ে সরকারের পক্ষ থেকে এখনো কোনো ব্যাখ্যা দেওয়া হয়নি। অর্থাৎ মহার্ঘ ভাতার হিসাব ৫০ শতাংশ ছাড়িয়ে যাবে।

   

২০১৬ সালে সপ্তম বেতন কমিশন কার্যকর করার সময় সরকার মহার্ঘ ভাতা শূন্যে নামিয়ে এনেছিল। বিধিমালা অনুযায়ী মহার্ঘ ভাতা ৫০ শতাংশে উন্নীত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনা হবে এবং ৫০ শতাংশ অনুযায়ী কর্মচারীরা ভাতা আকারে যে অর্থ পাচ্ছেন তা মূল বেতন অর্থাৎ ন্যূনতম বেতনের সঙ্গে যোগ হবে। ধরা যাক, কোনও কর্মীর মূল বেতন ১৮০০০ টাকা, তাহলে তিনি ৫০ শতাংশ ডিএ-র মধ্যে ৯০০০ টাকা পাবেন। তবে ৫০ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা থাকলে তা মূল বেতনের সঙ্গে যোগ হবে এবং মহার্ঘ ভাতা আবার শূন্যে নামিয়ে আনা হবে। অর্থাৎ মূল বেতন সংশোধন করে ২৭ হাজার টাকা করা হবে। তবে এর জন্য সরকারকেও ফিটমেন্ট পরিবর্তন করতে হতে পারে৷ যখনই নতুন বেতন স্কেল কার্যকর হবে, কর্মচারীদের প্রাপ্ত ডিএ মূল বেতনের সাথে যুক্ত হবে।

da karnataka

বেসিক স্যালারি নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। এই বিষয়ে বড় তথ্য দিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্ৰী পীযূষ গোয়েল।তিনি জানিয়েছেন,  ‘সেই সিদ্ধান্তটা বেতন কমিশন নেয়। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা চার শতাংশ ডিএ বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যেহেতু ডিএ বৃদ্ধি পেয়ে ৫০ শতাংশে দাঁড়িয়েছে, তাই হাউস রেন্ট অ্যালোওয়েন্সও বেড়েছে।’

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর