ফিরিয়েছেন Amazon, Infosys-র প্রস্তাব! এবার Microsoft-এ মোটা টাকার চাকরি পেলেন মুদির ছেলে

ভারতীয় পড়ুয়ারা বরাবরই বিশ্বের বৃহত্তম কোম্পানিগুলোতে একেবারে রাজ করতে থাকে। সুন্দর পিচাই থেকে সত্য নাদেলা তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ। টেকনোলজির বাজারে এমনও কথা চলে যে, আমেরিকার সিলিকন ভ্যালি আসলে ভারতীয়দের দ্বারাই নিয়ন্ত্রিত হয়। সেই কথা যে এতটুকুও অত্যুক্তি নয়, তা আবারো প্রমাণ করলো ভারতীয় পড়ুয়া মধুর রাখেজা।

বছরে একেবারে ৫০ লাখের চাকরি নিয়ে নিলেন মাইক্রোসফটের কাছে। তিনি নিজের পড়াশোনা সম্পূর্ন করেন দেরাদুনের UPES ইন্টারডিসিপ্লিনারি ইনস্টিটিউশন থেকে। চাকরি পাওয়ার পর মধুর জানান যে তার কাছে বেশ বড় কয়েকটি সংস্থার তালিকা ছিল এবং তিনি সেখানেরই কোনো এক কোম্পানিতে চাকরি পাওয়ার আশা করেছিলেন।

মাইক্রোসফট যে তার তালিকার শীর্ষে ছিল এই নিয়ে আর নতুন করে কিছু বলে দিতে হবে না। তবে ক্যাম্পাস প্লেসমেন্টের মাধ্যমে তিনি মাইক্রোসফ্ট ছাড়াও অ্যামাজন, অপটাম, কগনিজেন্ট, ইনফোসিস এবং আরো একাধিক কোম্পানির কাছে অফার পেয়েছিলেন। তবে এদের মধ্যে তার পছন্দের শীর্ষে ছিল মাইক্রোসফট। শীঘ্রই তিনি মাইক্রোসফটের বেঙ্গালুরুর অফিসে জয়েন করবেন।

এর জন্য মাইক্রোসফটের প্রায় ২০০ মিলিয়ন ডলার খরচ হতে চলেছে। তবে বাকি এতগুলো কোম্পানি ছেড়ে মাইক্রোসফট জয়েন করার কারন কী? সেই সম্পর্কে মধুর জানান যে, মাইক্রোসফট তাকে মোটা অংকের বেতন দেওয়ার পাশাপাশি ফ্লেক্সিবেল কাজের সময়, মাইক্রোসফ্টের শেয়ার এবং দারুণ কাজের পরিবেশের অফার দিয়েছে। সেজন্যই তিনি মাইক্রোসফটে যোগ দিয়েছেন।

madhur rakheja 1659501134

মধুর জানান যে, অনেকেই তাকে আপস্ট্রিম পেট্রোলিয়াম ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন। কিন্তু মধুর শেষপর্যন্ত নিজের সিদ্ধান্তে অটল থেকে কম্পিউটার সায়েন্স নিয়েই পড়াশোনা করার সিদ্ধান্ত নেন। জানা গিয়েছে যে, মধুর বাবা আম্বালাতে একটি মুদির দোকান চালান। তবে, ছেলের স্বপ্ন আর পড়াশোনার সঙ্গে কোনদিনও আপোষ করেন নি তিনি।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button