১০০০, ১২০০ নয়! মাসে মাসে ঘরে বসে মিলবে ৫০০০ টাকা! নয়া প্রকল্প পশ্চিমবঙ্গ সরকারের

লোকসভা ভোটের আগে রাজ্য বাজেট (Budget) পেশ করার সময়ে একের পর এক ঘোষণা করে চমকে দিয়েছে রাজ্য সরকার (Government Of West Bengal)। যে রাজ্য সরকার এত কিছু ঘোষণা একসঙ্গে করবে তা এক প্রকার কেউ ভাবতেও পারেননি। লোকসভা ভোটের আগে দুই হাত ধরে খরচ করার ঘোষণা করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। স্কুলের পড়ুয়া থেকে শুরু করে মহিলা পুরুষ এবং বয়স্ক….এক কথায় সকলের জন্যই কিছু না কিছু নিয়ে ঘোষণা করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।

২০২৪-২৫ সালের বাজেটে পশ্চিমবঙ্গের আর্থিক ঘাটতি বেড়ে ৬৮,২৫০ কোটি টাকা হয়েছে, যা ২০২২-২৩ সালের তুলনায় প্রায় ৩৭% বৃদ্ধি পেয়েছে। সেইসময় রাজস্ব ঘাটতি ছিল ৪৯,৯৬৬ কোটি টাকা। যদিও রাজ্যের তৃণমূল সরকার বৃহস্পতিবার নতুন কল্যাণমূলক প্রকল্প ঘোষণা করেছে এবং মহিলা, যুবক এবং সমাজের বিভিন্ন অংশের উপকারের জন্য বিদ্যমান প্রকল্পগুলির আর্থিক পরিমাণ এক ধাক্কায় বাড়িয়েছে।

   

সব থেকে বেশি নজর কেড়েছে মৎস্যজীবীদের (Fisherman) নিয়ে করা সরকারের একটি বিশেষ ঘোষণা । বাংলার মৎস্যজীবীদের জীবন-জীবিকার কথা মাথায় রেখে রাজ্য বাজেটে তাঁদের জন্য বিশেষ প্রকল্প ‘সমুদ্রসাথী’ (Samudra Sathi) ঘোষণা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সংসদে বাজেট পেশের সময় অর্থ প্রতিমন্ত্রী (স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত) চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য বলেন, আবহাওয়ার কারণে এপ্রিল থেকে জুনের মাঝামাঝি পর্যন্ত মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে দেওয়া হয় না, যা তাদের জীবিকার উপর প্রভাব ফেলে।

এ কারণে জীবিকা নির্বাহে তাদের নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। এই প্রকল্পে প্রত্যেক মৎস্যজীবীকে বছরে দু’মাস করে পাঁচ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। এর ফলে রাজ্যের উপকূলবর্তী জেলাগুলির প্রায় দু’লক্ষ মৎস্যজীবী উপকৃত হবেন। এর জন্য বাজেটে ২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

fishermens

উপকূলবর্তী জেলাগুলি, বিশেষ করে পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার মৎস্যজীবীরা এর দ্বারা উপকৃত হবেন। এসব জেলার জেলেরা প্রতিবছর এপ্রিল থেকে জুন মাস পর্যন্ত তাদের জীবিকা নির্বাহে নানা বাধার সম্মুখীন হয়। সেই কথা মাথায় রেখেই সমুদ্রসাথী প্রকল্প প্রণয়ন করা হয়েছে। এই প্রকল্পের আওতায় এই তিন জেলার প্রত্যেক নথিভুক্ত মৎস্যজীবী দু’মাসের জন্য পাঁচ হাজার টাকা করে পাবেন।

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর