ফিক্সড ডিপোজিট অতীত! মাত্র ১০০০ বিনিয়োগে এই স্কিমে প্রতিমাসে মিলবে ২০ হাজার টাকা

আপনিও কি অবসর নিয়ে নিয়েছেন বা অবসর নেওয়ার কথা ভাবনা চিন্তা করছেন? তাহলে আপনার জন্য রইল একটি অত্যন্ত জরুরি খবর। চাকরি থেকে অবসরগ্রহণের পর কী করা যায়? বা টাকা কীভাবে কোথায় হিসেব করে খরচ করা যায়, সেই চিন্তা সকলের মধ্যেই থাকে। আপনার মাথাতেও নিশ্চয়ই এই বিষয়টি ঘোরাফেরা করে? সুন্দর জীবনযাপনের জন্য প্রয়োজন হয় অর্থের। আপনি যদি অবসর গ্রহণের পরে স্থিতিশীল আয় চান তবে পোস্ট অফিসের সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম আপনার জন্য একদম আদর্শ জিনিস।

আপনি এই স্কিমে, আপনি ১০০০ টাকা থেকে বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন। হ্যাঁ ঠিকই শুনেছেন। এই স্কিমটি প্রবীণ নাগরিকদের (Senior citizen) জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে। এই স্কিমে বিনিয়োগের (Investment) জন্য যোগ্যতার একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মানদণ্ড হল যে অ্যাকাউন্টধারীর বয়স ৬০ বছর বা তার বেশি। তবে যাঁরা ভিআরএস বেছে নিচ্ছেন, তাঁরা ৫৫ বছর পরেও বিনিয়োগ করতে পারবেন। এ ছাড়া সেনাবাহিনীর সদস্যরা আরও ৫ বছরের ছাড় পাবেন। অর্থাৎ ৫০ বছর বয়স থেকে বিনিয়োগ শুরু করতে পারবেন।

   

এটি একটি সরকারি প্রকল্প যার সুদের হারও সরকার নির্ধারণ করে। বর্তমানে এ বিষয়ে বার্ষিক ৮.২ শতাংশ হারে সুদ পরিশোধ করছে সরকার। এর সুদের হার যে কোনও এফডির (Fixed Deposit) চেয়ে ভাল। এই স্কিমে বিনিয়োগ যত বেশি হবে, রিটার্ন তত বেশি হবে। এতে আপনি সর্বোচ্চ ৩০ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করতে পারবেন।

senior citizen

যদি কোনও প্রবীণ নাগরিক এই প্রকল্পে ৩০ লক্ষ টাকা রাখেন, তাহলে তিনি বার্ষিক ২.৪৬ লক্ষ টাকা সুদ পাবেন। প্রতি মাসে দেখলে ২০ হাজার টাকা হয়ে যায়। এই টাকা কোয়ার্টারে নিতে চাইলে পাবেন ৬১,৫০০ টাকা। কোনও ব্যক্তি যদি ৫ লক্ষ টাকা দেন, তাহলে তিনি প্রতি ত্রৈমাসিকে ১০,২৫০ টাকা করে পাবেন। কর প্রদানের সময়ও আপনি এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন। আয়কর আইনের ধারা 80C এর অধীনে, আপনি ১.৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত কর ছাড় পাবেন। এর সুদ প্রতি বছর এপ্রিল, জুলাই, অক্টোবর ও জানুয়ারীর প্রথম সপ্তাহে অ্যাকাউন্টে রাখা হয়।

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর