ইস্টবেঙ্গল ৩, মোহনবাগান ৩! ISL ডার্বিতে মাঠ কাঁপালেন দুই পক্ষের এই ছয় প্লেয়ার

ভালোভাবে সম্পন্ন হয়েছে আরও একটা ডার্বি (Kolkata Derby)। মোহন বাগান সুপার জায়ান্ট (Mohun Bagan A.C.) বনাম ইস্টবেঙ্গল এফসির (East Bengal FC) এই ম্যাচের ফল থেকেছে অমীমাংসিত। ইন্ডিয়ান সুপার লিগে (Indian Super League) আয়োজিত এই বড় ম্যাচের ফলাফল ২-২। ম্যাচের শেষ পর্যন্ত বজায় ছিল টানটান উত্তেজনা। নজর কেড়েছেন দুই দলের একাধিক ফুটবলার।

ম্যাচে আয়োজক মোহন বাগান সুপার জায়ান্টের ৩ ফুটবলারের কথা বিশেষভাবে বলতে হয়। এই তিন ফুটবলারের ওপর বাগানের খেলা অনেকটা নির্ভর করেছে গতকাল।

   

দিমিত্রি পেত্রোতোস: নতুন কোচ একটু নতুন ভাবে কাজে লাগাচ্ছেন দিমিত্রি পেত্রোতোসকে। বাগানের আগের কোচ তাঁকে আক্রমণ তৈরি করার কাজে ব্যবহার করেছিলেন। বর্তমান কোচ অ্যান্টোনিও লোপেজ হাবাস পেত্রোতোসকে কাজে লাগালেন আরও আক্রমণাত্মক ভূমিকায়। প্রতিপক্ষের। বক্সে বারবার প্রবেশ করেছেন তিনি। ৮৭ মিনিটের মাথায় তাঁর যে গোলে মোহনবাগান ড্র করেছে তা এক জন বক্স স্ট্রাইকারের গোল।

আর্মান্দো সাদিকু: প্রচুর সমালোচনা সহ্য করেছেন। এবার ইস্টবেঙ্গলকে সহ্য করতে হল আর্মান্দো সাদিকুর আক্রমণ। ব্যক্তিগত দক্ষতায় গোল করে প্রতিপক্ষের ওপর চাপ বাড়িয়েছিলেন তিনি।

মনবীর সিংহ: গোল করতে না পারলেও কয়েক বার গোল করার জায়গায় পৌঁছে গিয়েছিলেন। একাধিক আক্রমনের কান্ডারী ছিলেন তিনি।

ইস্টবেঙ্গলের সেরা ৩

অজয় ছেত্রী: ইস্টবেঙ্গলের প্রথম গোল এসেছে অজয়ের পা থেকেই। ইস্টবেঙ্গল মাঝমাঠের অন্যতম সেরা। নিজের গতিকে কাজে লাগিয়ে বারবার গড়ে তুলেছেন আক্রমণ।

ক্লেটন সিলভা: গোল করেছেন, গোলের সুযোগ তৈরি করেছেন। ক্যাপ্টেনের মতোই আরও একটা ম্যাচ খেলেছেন ক্লেটন সিলভা। নিশ্চিত ভাবে শনিবার ইস্টবেঙ্গলের সেরা পারফর্মার তিনি।

মহেশ সিং: গোটা মাঠ জুড়ে খেললেন। দলের দরকারে কখনো আক্রমণ করেছেন, কখনো নেমে এসেছেন রক্ষণে। একাধিক বার বল নিয়ে বিপজ্জনক ভাবে মোহনবাগানের বক্সে ঢুকে পড়েছিলেন মহেশ।

সম্পর্কিত খবর