প্রেমে পড়ে লিঙ্গ বদলে রবি থেকে রিয়া, বিয়ের পর হিজড়াদের হাতে তুলে দিতে চায় স্বামী

অমৃতসরঃ ভালোবাসায় মানুষ কিই না করে। দশরথ মাঝির পাহাড় কেটে ফেলার গল্প তো আমরা সবাই জানি। কিন্তু নিজের সীমা ছাড়িয়ে ভালোবাসার পর যদি অপর সাথী সেই ভালোবাসার কদর দিতে না পারে, তাহলে পরিস্থিতি হয়ে ওঠে ক্রমশ জটিল। সম্পর্কের মধ্যে মধুরতা কমে গিয়ে বেড়ে ওঠে তিক্ততা। তেমনই এক রিপোর্ট উঠে এসেছে পাঞ্জাবের অমৃতসর থেকে। প্রেমে পড়ে করেছিলেন নিজের লিঙ্গ পরিবর্তন, তবুও টিকলো না সেই ভালোবাসা!

প্রেমে পড়লে মানুষ যে দিশাহীন হয় তার প্রমাণ মিলল পাঞ্জাবের অমৃতসরে। জানা যাচ্ছে এক ব্যক্তি নিজের লিঙ্গ পরিবর্তন করেন ভালোবাসার জন্য। তার নাম রবি। তিনি পাঞ্জাবের জলন্ধরে একটি কোম্পানিতে কাজ করতেন। সেখানেই তার আলাপ হয় অর্জুন নামক এক ব্যক্তির সাথে। এবার ধীরে ধীরে তাদের মধ্যে হতে থাকে গভীর বন্ধুত্ব। পরবর্তীতে বন্ধুত্ব এতটাই গভীরে চলে যায় জে, দুজনেই পড়ে যান একে অপরের প্রেমে।

আর এই প্রেম থেকেই যত বিপত্তির সূত্রপাত। প্রথমে বেশ কিছুদিন তারা সমলিঙ্গ প্রেম করলেও সমাজ মেনে নেবে না বলে বুঝতে পারে তারা। কিন্ত অর্জুনের প্রেমে রবি এতটাই পাগল যে সে ছাড়তে চায় না অর্জুনকে। শেষে রবি নিজের লিঙ্গ পরিবর্তন করে নাম রাখে রিয়া। পরবর্তীতে দুই পরিবারের মতে বিয়েও হয় তাদের।

punjab transgender

কিন্তু বর্তমানে তাদের মধ্যে শুরু লেগেছে তুমুল অশান্তি। প্রথম প্রথম ভালো চললেও কিছুদিন পর থেকে বাড়তে থাকে তিক্ততা। রিয়াকে সহ্য করতে না পেরে অর্জুন তাকে কিন্নর সমাজের কাছে তাকে ছেড়ে আসার কথা জানায়। এরপরই সে থানায় এসে নিজের অভিযোগ জানায়। তার সন্দেহ অন্য মহিলা এসেছে অর্জুনের জীবনে। পুরো অভিযোগ শোনার পরই পুলিশ জানায় যে, তারা এই মামলাটি তদন্ত করে দেখছে এবং দোষীকে কোনোভাবেই রেয়াত করা হবে না।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button