গভীর নিম্নচাপ বঙ্গোপসাগরে! এই দিন থেকে ফের বদলে যাবে আবহাওয়া, বৃষ্টিতে ভাসবে দক্ষিণবঙ্গ

বাংলার (West Bengal) আকাশ থেকে দুর্যোগের কালো মেঘ যেন সরতেই চাইছে না। শুধু বৃষ্টি আর বৃষ্টি। অকাল বৃষ্টিতে একদিকে যেমন ফসলের পর ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ঠিক তেমনভাবেই আবহাওয়ার (Weather) ওঠানামার কারণে মানুষের শরীরও খারাপ হচ্ছে। বর্তমান সময়ে একপ্রকার দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ঠান্ডায়। কনকনে শীতল আবহাওয়ার জেরে কাবু কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গ (South Bengal) ও উত্তরবঙ্গের (North Bengal) জেলাগুলি।

এরই মাঝে নতুন করে আবহাওয়ার বিরাট পরিবর্তন নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। যা শুনে আপনারও চোখ একপ্রকার ছানাবড়া হয়ে যেতে পারে। আগামী মঙ্গলবার থেকে ফের একবার বদলে যাবে রাজ্যের আবহাওয়া। শীত তো থাকবেই, সেইসঙ্গে ফের ঝেঁপে বৃষ্টি নামবে জেলায় জেলায়। হ্যাঁ একদম ঠিক শুনেছেন। এদিকে হাওয়া অফিসের এহেন পূর্বাভাস শুনে ঘুম উড়ে যাবে সকলের সেটা বলাই বাহুল্য।

   

টানা মেঘ, ঘন কুয়াশা, বৃষ্টি, শীত…সব মিলিয়ে বাংলার আবহাওয়ার মতিগতির কোনও ঠিক নেই। এদিকে বৃষ্টির সঙ্গে রাজ্যের তাপমাত্রা উর্ধ্বমুখী হওয়ার পূর্বাভাসও দিয়েছে হাওয়া অফিস। যদিও শীতল আবহাওয়া বজায় থাকবে বলে খবর। শীত থেকে এখনই কোনও রেহাই নেই বলে পূর্বাভাস। জানা গিয়েছে, জানুয়ারি মাসের শেষ দিন এবং ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম দিন দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জেলাতে বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হচ্ছে। কেন এই পরিস্থিতি? আবহাওয়া বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, বঙ্গোপসাগরে (Bay of Bengal) আবারও উচ্চচাপ বলয় তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তার প্রভাবে জলীয় বাতাস ঢুকবে। দক্ষিণবঙ্গের উপকূল ও উপকূল সংলগ্ন জেলাগুলিতে হালকা বৃষ্টির সামান্য সম্ভাবনা রয়েছে।

এছাড়া রয়েছে দু’দুটি ঘূর্ণাবর্তের চোখ রাঙানিও। জানা গিয়েছে, এই মুহূর্তে রাজস্থান ও কর্নাটকে দুটি ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে। একটি অক্ষরেখা রয়েছে কর্ণাটক থেকে উড়িষ্যা পর্যন্ত যা তেলেঙ্গানার উপর দিয়ে রয়েছে।  উত্তর-পশ্চিম ভারতে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ঢুকেছে। আরও একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ঢুকবে ২৭ জানুয়ারি শনিবার।

rainfall wb

এদিকে এই শীতের আরও কিছুটা আমেজ নিতে পাহাড়ে ঘুরতে গিয়েও শান্তি পাবেন না পর্যটকরা। কারণ আগামীকাল দার্জিলিং ও কালিম্পং-এর পার্বত্য এলাকায় হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া বৃষ্টি ও তুষারপাত হতে পারে সিকিমেও।  মাস শেষে বৃষ্টির আগে এক সপ্তাহ ধরে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে ঘোরাফেরা করবে।

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর