সাহসী হলে আফগানিস্তানে বোরখা না পরে দেখাও! হিজাব বিতর্কে বললেন কঙ্গনা রানাওয়াত

মুম্বইঃ হিজাব নিয়ে কর্ণাটকের উডুপি জুনিয়র কলেজে শুরু হওয়া বিতর্ক ক্রমেই বাড়ছে। এই বিরোধ এবার রাজনৈতিক রূপ নিয়েছে। সব রাজনীতিবিদরা এই বিষয়ে তাদের মতামত দিচ্ছেন। বলিউড তারকারাও পিছিয়ে নেই। এখনও অবধি রিচা চাড্ডা, জাভেদ আখতারের মতো অনেক তারকা এই বিতর্কে তাদের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। এই পর্বে বলিউডের ‘পাঙ্গা গার্ল’ কঙ্গনা রানাওয়াতও যোগ দিয়েছেন। কঙ্গনা রানাওয়াত দেশে চলমান প্রতিটি ইস্যুতে খোলামেলা কথা বলেন এবং এখন হিজাব নিয়ে চলমান বিতর্কে তার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন অভিনেত্রী।

আসলে, কঙ্গনা রানাওয়াত তার অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে একটি গল্প শেয়ার করেছেন, যা লেখক আনন্দ রঙ্গনাথনের পোস্টের একটি স্ক্রিনশট। এই পোস্টে ইরানের পরিবর্তনের আভাস দেখানো হয়েছে দুটি ছবির মাধ্যমে। প্রথম ছবিতে, ১৯৭৩ সালে ইরানী মহিলাদের বিকিনিতে দেখা যায় এবং এখন মহিলাদের বোরকা পরা দেখা যায়। এই ছবির সাথে লেখা আছে ১৯৭৩ সালের ইরান এবং এখনকার ইরান।

নিজের ইন্সটা স্টোরিতে আনন্দ রঙ্গনাথনের পোস্টের স্ক্রিনশট শেয়ার করে কঙ্গনা রানাওয়াতও এই বিষয়ে তার মতামত প্রকাশ করেছেন। কঙ্গনা রানাওয়াত লিখেছেন, ‘যদি সাহস দেখাতে চান, তবে আফগানিস্তানে বোরখা না পরে দেখান… খাঁচা থেকে নিজেকে মুক্ত করতে শিখুন।’

কঙ্গনা রানাওয়াতের আগে, বিখ্যাত গীতিকার জাভেদ আখতার এই বিষয়ে তার প্রতিক্রিয়া জানিয়ে একটি টুইট করেছিলেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘‘আমি কোনও দিনই হিজাব বা বোরখার সমর্থন করি না। সেই মনোভাব এখনও আমার বদলে যায়নি। তবে সম্প্রতি কর্ণাটকের কলেজের স্বল্প সংখ্যক মেয়েদের উপর একদল দুষ্কৃতী যেভাবে চড়াও হল, সেই ঘটনার তীব্র নিন্দা করছি। তবে তারা অসফল। কিন্তু আমার প্রশ্ন এটাকেই কি পুরুষত্ব বলে! গোটা ঘটনায় আমি একেবারেই হতাশ”

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button