বন্দে ভারতকে টেক্কা দিতে আরেক নতুন ট্রেন নিয়ে এল রেল! জানুন কোন রুটে ছুটবে, গতিই বা কত

ভারতীয় রেলকে (Indian Railways) সাধেই কিন্তু দেশের লাইফ লাইন বা মেরুদন্ড কিন্তু বলা হয় না। কয়েক হাজার কিলোমিটার জুড়ে বিস্তৃত রয়েছে এই রেল ব্যবস্থা। প্রত্যেকদিন কোটি কোটি মানুষ রেলে ভ্রমণ করেন। দেশের সিংহভাগ মানুষের কাছে ভ্রমণের অন্যতম প্রিয় মাধ্যম হলো এই রেল।

   

ছোট হোক বা বড় যাত্রা সকলেই এই ট্রেনে ভ্রমণ করতে অত্যন্ত পছন্দ করে থাকেন। কারণ জেলে ভ্রমণ সবথেকে সস্তার এবং আরামদায়ক। ভারতীয় রেল বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম রেল নেটওয়ার্ক। এদিকে মানুষের চাহিদার কথা মাথায় রেখে একের পর এক পদক্ষেপ নিয়েই চলেছে। ভারতীয় রেল দেশে বেশ কিছু প্রিমিয়াম ট্রেন চলাচল করছে, যার মধ্যে অন্যতম হলো বন্দে ভারত এক্সপ্রেস। যে একবারে ট্রেনে ওঠে সে বারবারই উঠতে চায় যদিও এখন বন্দে ভারতের এক প্রকার বাজার মারতে আসছে আরো একটি বিশেষ ট্রেন।

ইতিমধ্যেই সেই ট্রেনের ট্রায়াল রান অবধি হয়ে গেল বলে জানা গিয়েছে। হ্যাঁ একদম ঠিক শুনেছেন আপনিও যদি রেল প্রেমী হয়ে থাকেন তাহলে এই খবরটি রইল শুধুমাত্র আপনার জন্য। যে ট্রেন আসছে তার নাম হচ্ছে অমৃতভারত ট্রেন। জানা যাচ্ছে, যাত্রার জন্য প্রস্তুত দেশের প্রথম অমৃতভারত ট্রেন। এটি একটি ব্রিজ-পুশ ট্রেন, যেমন বন্দে ভারত এক্সপ্রেস বা ইএমইউ ট্রেন অল্প সময়ের মধ্যে গতি বাড়ায়, এই অমৃত ভারতও গতি পাবে। এর রুটও প্রায় ঠিক হয়ে গেছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে খুব শীঘ্রই প্রথম ট্রেন চলাচল শুরু করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

অমৃত ভারত এক্সপ্রেসের রঙ হবে কমলা। এর ইঞ্জিন বন্দে ভারত এবং ইএমইউ-এর আদলে হবে, যা সম্পূর্ণ কমলা রঙের হবে। রেলবোর্ডের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ২২ কোচের ট্রেনটি ঘণ্টায় ১৩০ কিলোমিটার বেগে চলবে। মূলত দেশের শ্রমিক ও শ্রমিকদের কথা মাথায় রেখেই তৈরি করা হয়েছে অমৃত ভারত। এতে স্লিপার ও জেনারেল ক্লাসের কোচ থাকবে। পুল-পুশ প্রযুক্তির কারণে অমৃত ভারত ট্রেন দ্রুত গতিতে উঠতে সক্ষম হবে এবং গতি বৃদ্ধি পাবে।

vande sadharan

রাজধানী এক্সপ্রেস, শতাব্দী এক্সপ্রেস এবং বন্দে ভারতের মতো সাধারণ মানুষের এই ট্রেনটি ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৩০ কিলোমিটার গতিতে চলবে। এর ভাড়াও সকলের সাধ্যের মধ্যে হবার বলার খবর। সম্ভবত দেশের প্রথম অমৃত ভারত দুটি রুটে একযোগে চলবে, একটি হবে চিতোরগড় এক্সপ্রেস এবং অন্যটি হবে তামিলনাড়ু এক্সপ্রেস। পরে উত্তর প্রদেশ, বিহার, পাঞ্জাব, ঝাড়খন্ড, গুজরাট, মহারাষ্ট্র সহ দক্ষিণ ভারতের রাজ্যগুলির মধ্যে অমৃত ভারত ট্রেন চলবে। কারণ এই রাজ্যগুলিতে প্রচুর সংখ্যক শ্রমিক রয়েছেন।