শিয়ালদহ স্টেশনের অ্যাকোয়ারিয়াম থেকে রেলের আয় ১৭ লাখ টাকা! কীভাবে জানলে অবাক হবেন

ভারতের (India) কোটি কোটি মানুষের কাছে গণপরিবহনের ক্ষেত্রে রেল (Indian Railways) পরিষেবা এক অত্যন্ত নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠান। আর সেই কারণে রেলকে ভারতের লাইফ লাইন বলা হয়ে থাকে। কমখরচে এবং সময় বাঁচিয়ে ফেলা যায় রেলে ভ্রমণ করলে। সুবিধার দিক থেকে বললে একগুচ্ছ সুবিধা রয়েছে রেল পরিষেবার। জানা যায় যে, দেশের ৫০ লক্ষ মানুষ প্রতিদিন রেল পরিষেবার ওপর অত্যন্ত নির্ভরশীল।

রেলের সাজসজ্জা বহুদিন ধরে উপক্ষিত হলেও মোদী সরকার ক্ষমতায় এসেই রেল ব্যবস্থার সৌন্দর্য্যায়নে মনোনিবেশ করে। ভারতীয় রেল ব্যাবস্থাকে সাজিয়ে তোলার জন্য একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে ভারতীয় রেল। আর রেলের সেই সিদ্ধান্তের মধ্যে অন্যতম হলো শিয়ালদহ (Sealdah) স্টেশনকে সাজিয়ে তোলা।

বাংলার এই ব্যস্ত স্টেশনকে অতীব সুন্দর সজ্জায় সাজিয়ে তুলেছে রেল। করোনা পরিস্থিতির সময়ই স্টেশনকে দারুণ করে সাজিয়ে ফেলে তারা। এই রেল স্টেশনকে সাজিয়ে তোলার জন্য বসানো হয়েছে ফোয়ারা, অ্যাকোরিয়াম ইত্যাদি। বিপুল পরিমাণ অর্থে স্টেশনের সৌন্দর্য্যায়ন করা হয়েছে। আর সেই নিয়ে এবার সামনে এল আরেক রিপোর্ট।

যেমন কোটি কোটি টাকা ব্যয় করে IRCTC ফোয়ারা, অ্যাকোরিয়াম বসিয়েছিল তেমনই এবার সেখান থেকে রেলের আয়ের পরিমাণও বেড়েছে। জানা যাচ্ছে যে, শিয়ালদহ স্টেশনের অ্যাকোরিয়াম থেকেই রেলের এক বছরে উপার্জনের পরিমাণ ১৭ লক্ষ টাকা। এছাড়া সবচেয়ে সুবিধার হলো যে এই আয়ের পিছনে যাত্রীদের এক টাকাও খরচ করতে হয়নি।

কীভাবে এই আয় হয়েছে রেলের : আসলে শিয়ালদহ স্টেশনের অ্যাকোরিয়াম যাত্রীদের কাছে এখন অন্যতম আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু। সেখানে অপেক্ষারত যাত্রীরা অনেক সময়ই অ্যাকোরিয়ামের আশেপাশে ঘুরে কাটান। চার নাম্বার প্ল্যাটফর্মের সামনে অবস্থিত এই অ্যাকোরিয়ামের সামনে আসলে বড় বড় বিজ্ঞাপনের জায়গা রয়েছে। সেখানে বিজ্ঞাপন থেকেই রেলের এই এত টাকা আয় হয়েছে।

263422445 464750395074882 6521979779598266680 n

এই সিদ্ধান্তে এক ঢিলে দুই পাখি মেরেছে রেল কর্তৃপক্ষ। একদিকে যেমন স্টেশনের সৌন্দর্য্যায়ন হয়েছে তেমনি বিজ্ঞাপন থেকেও বেশ ভালো পরিমাণ আয় হয়ে চলেছে। যাত্রীদের এক টাকাও দিতে হচ্ছেনা কিন্তু যাত্রীদের মধ্যে আকর্ষনের কেন্দ্রবিন্দু হওয়ায় সেখানে বিজ্ঞাপণ দেওয়ার জন্যও চড়া টাকা নিচ্ছে রেল।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button