চিন সীমান্ত পর্যন্ত ট্র্যাক, নতুন রেললাইনের সাথে ভুটানকে সংযুক্ত করার পরিকল্পনা রেলের

চিন সীমান্তে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সম্প্রসারণে পরিকল্পনায় নয়াগতি যোগ হয়েছে। ভারতীয় রেল (Indian Railways) তাদের নয়া প্ল্যানে জানিয়েছে যে, চিন সীমান্তে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সুবিধার্থে তারা নয়া সম্প্রসারণ পরিকল্পনা শুরু করেছে। দেশের উত্তর পূর্বে রেলপথকে আরো শক্তিশালী করে তুলতে অগ্রগণ্য ভূমিকা গ্রহণ করবে এই রেলপথ।

দেশের মধ্যে স্থাপনা হবে নয়া রেলপথের। সেটি চিন সীমান্ত পর্যন্ত বিস্তৃত হবে। এই রেলপথ ভুটান হয়ে চিন সীমানা অবধি যাবে। রেল মন্ত্রক জানিয়েছে যে এই সম্প্রসারণের পুরোটাই হবে রেলের অধীনে। প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য অরুণাচল প্রদেশে পুরোদমে নতুন সমীক্ষা করছে রেলওয়ে।

এই বিষয়ে উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক (CPRO) সব্যসাচী দে এই প্রস্তুতি সম্পর্কে বিশদে তথ্য দিয়েছেন। তিনি জানান যে উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলওয়ে জোন অরুণাচল প্রদেশ সহ উত্তর পূর্ব অঞ্চলের আরও কিছু জায়গায় নতুন রেল প্রকল্প নির্মাণের পরিকল্পনা করেছে।

ভারতীয় রেল চিন সীমান্ত বরাবর ভালুকপং থেকে তাওয়াং এবং সিলাপাথার থেকে আলং ভায়া পর্যন্ত একটি নতুন রেলপথ নির্মাণ করার পরিকল্পনা করেছে। পাশাপাশি আরো একটি লাইন তৈরি হবে মুরকংসেলেক থেকে পাসিঘাট পর্যন্ত। তবে এখানেই শেষ নয়, এগুলি ছাড়াও, উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলওয়ে জোন আরো একটি রেলপথের প্রস্তাব রেখেছে। এটি লঙ্কা থেকে শুরু করে আসামের চন্দ্রনাথপুরে পৌঁছাবে।

এইদিন উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলওয়ের প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা (সিপিআরও) সব্যসাচী দেও’র কথা থেকে জানা যায়, রেল কর্তৃপক্ষ দ্রুত আসামের সাথে সংযোগ স্থাপন করতে চায়। তিনি জানান, ‘আমরা রেলপথের মাধ্যমে ভুটানকে সংযুক্ত করার পরিকল্পনা করেছি এবং নতুন রেললাইন হবে কোকরাঝার (আসামের) থেকে ভুটানের গেলফু পর্যন্ত। এই নতুন রেললাইনটি প্রায় ৫৮ কিলোমিটার দীর্ঘ হবে।’

rail train loco

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, চলতি বছরের শুরুর দিকে বন্যা এবং ধ্বসের কারণে ব্যপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে আসামের দিমা হাসাও রেলপথের কিছু অংশ। যদিও তা মেরামতের কাজ শুরু হয়ে গেছে তবে আপাতত এই লাইনে রেল চলাচল একেবারেই বন্ধ। তবে সরকারের তরফ থেকে একাধিক প্রকল্পের প্রস্তাব রাখা হয়েছে বলে খবর। যার মধ্যে রয়েছে নতুন রেললাইন নির্মাণ, লাইন দ্বিগুণ করা, স্টেশন উন্নয়ন, বিদ্যুতায়ন ইত্যাদি। সূত্রের খবর, প্রায় ১.১৫ লক্ষ্য কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে এর জন্য।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button