স্বামী-স্ত্রীয়ের মাঝে তৃতীয় ব্যক্তি! ভিলেন টিম ইন্ডিয়ার এই প্লেয়ার, আগুন সূর্যকুমারের সংসারে

টিম ইন্ডিয়ার (India national cricket team) অন্যতম তারকা ব্যাটসম্যান সূর্যকুমার যাদব (Suryakumar Yadav) নিজের বিস্ফোরক ব্যাটিং দিয়ে ভক্তদের হৃদয়ে বিশেষ জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। সূর্য ৩৬০ ডিগ্রি ব্যাটসম্যান হিসাবে খ্যাতি পেয়েছেন। যে ক্লাস তিনি দেখিয়েছেন তার ব্যাটিংয়ে,  তাঁর কারণে তাকে দক্ষিণ আফ্রিকার আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্সের (AB de Villiers) সাথে তুলনা করা হয়।

২০২৩ সালের এশিয়া কাপে (Asia Cup) সূর্যর বিস্ফোরক ফর্ম দেখা যাবে বলেই আশা ভারতীয় ক্রিকেট প্রেমীদের। তবে এশিয়া কাপের আগে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন তিনি। কিন্তু এরই মধ্যে স্ত্রীর সঙ্গে নাকি সম্পর্কে ফাটল ধরেছে তাঁর। এই কথা ব্যাটসম্যান নিজেই ছবি শেয়ার করে প্রকাশ করেছেন।

টিম ইন্ডিয়ার তারকা ব্যাটসম্যান সূর্যকুমার যাদব সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয় থাকেন। তিনি মাঝে মধ্যেই মজার মজার ভিডিও এবং ছবি ভক্তদের সঙ্গে ভাগ করে নেন। সূর্যকুমার যাদবের স্ত্রীকেও সবসময় তার সঙ্গে দেখা যায়। সূর্যের স্ত্রী দেবীশা শেঠি তার ছায়ার মতো, তাকে সবসময় সূর্যর সাথেই দেখা যায়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) দেবীশা শেঠির একটি সুন্দর ছবি শেয়ার করছেন সূর্যকুমার। কিন্তু এবার দেবীশা শেঠি ইনস্টাগ্রামে একটি স্টোরি পোস্ট করেছেন। যা সূর্য তার টাইমলাইনে শেয়ার করেছেন। ছবিতে দেবীশা, সূর্যের সাথে টিম ইন্ডিয়ার হয়ে অভিষেক হওয়া তিলক ভার্মাকেও (Tilak Varma) পিছনে দেখা যাচ্ছে। এই ছবির শেয়ারের ক্যাপশনে লিখেছেন “কাবাবে হাড্ডি, আমিই হাড্ডি”। এরপরই তার পোস্ট আগুনের মতো ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

tilak and sky

সূর্যকুমার যাদব এবং দেবীশা শেঠির প্রেমের গল্প বলিউডের ছবির থেকে কম নয়। কলেজের সময়ই দেবীশা শেঠির কাছে সূর্য তার হৃদয় হারিয়েছিলেন। এই গল্পের শুরু ২০১০ সালে। ২০১০ সালে গ্র্যাজুয়েশনের সময় সূর্যকুমার প্রথমবার দেবীশাকে দেখেছিলেন। কলেজের একটি অনুষ্ঠানে নাচছিলেন দেবীশা। তখনই সে তাঁকে নিজের করে নেওয়ার প্রতিজ্ঞা করেছিল।