মার্চের প্রথমেই ৪০ ডিগ্রি ছুঁল এই শহরের তাপমাত্রা! আসছে ভয়াবহ গরম, সতর্কতা IMD-র

মার্চ (March) মাস শুরু হতেই খেলা দেখাতে শুরু করেছে দেশের আবহাওয়া (Weather)। বৃষ্টির পূর্বাভাস থাকলেও ভ্যাপসা গরমে রীতিমতো কালঘাম ছুটে যাচ্ছে সকলের। ইতিমধ্যে বাংলার (West Bengal) বেশ কিছু জেলার পারদ ৩০ ডিগ্রি ছুঁয়ে ফেলেছিল। এদিকে দেশের দক্ষিণ, মধ্য ও পশ্চিমাঞ্চলে প্রাক-বর্ষার তাপপ্রবাহ বাড়তে শুরু করেছে।

আপনি জানলে অবাক হবেন, দেশের একটি শহর ইতিমধ্যে মরসুমের প্রথম ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছুঁয়ে ফেলল। গুজরাটের আমরেলি খাম্বা বনের গুহার জন্য বিখ্যাত। আর এই শহরে মার্চ মাসের প্রথম দিনে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অন্যদিকে রায়ালসীমা, উত্তর অভ্যন্তরীণ কর্ণাটক এবং কেরালা ও তামিলনাড়ুর কিছু অংশে তাপমাত্রা ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়েছে। কুর্নুল, কাডাপা এবং অনন্তপুরে গত দু’দিনে তাপমাত্রা ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছেছে। তবে, গুজরাট রাজ্যটি সবচেয়ে উষ্ণতম রাজ্য হয়ে উঠেছে। কারণ মাসের শুরুতে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছেছে।

   

ঐতিহ্যগতভাবে, পশ্চিমে গুজরাট এবং পূর্ব উপকূলের ওড়িশা রাজ্যগুলি প্রাক-বর্ষা ঋতুতে সবচেয়ে উষ্ণতম রাজ্য হিসাবে গণনা করা হয়। দুটি রাজ্য একটি দীর্ঘ উপকূলরেখা ভাগ করে নেয় যা গরম এবং আর্দ্র পরিস্থিতি সরবরাহ করে। গুজরাটের বেশিরভাগ অংশে গত দু’দিনে মরসুমের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। আমরেলিতে ৩৯.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে প্রায় ৫ ডিগ্রি বেশি, রাজকোট ও বরোদায় যথাক্রমে ৩৭.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং ৩৭.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস নিয়ে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে রয়েছে।

গুজরাটের গুরুত্বপূর্ণ দুটি শহর আহমেদাবাদ ও গান্ধীনগরের তাপমাত্রা ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়েছে, যা আবার স্বাভাবিকের থেকে ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি। এদিকে দেসা, পাটান, সুরেন্দ্রনগর, ভাবনগর ও ভুজে পারদ রেকর্ড করা হয়েছে ৩৬-৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এমনকি, বেশির ভাগ জায়গায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল স্বাভাবিকের থেকে ৬-৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যদিও আগামী ১২ থেকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে রাজ্যে বৃষ্টির পূর্বাভাসও জারি করেছে স্থানীয় আবহাওয়া দফতর।

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর