আড়াই ঘণ্টার সফর মাত্র ৫৫ মিনিটে, প্রযুক্তিগত পরীক্ষার জন্য তৈরি ভারতের প্রথম র‍্যাপিড রেল

২০১৪ তে পালাবদলের পর সারা ভারতবাসী লক্ষ্য করেছে দেশের অবকাঠামো ব্যবস্থার সার্বিক উন্নতি। প্রধানমন্ত্রীর ‘আত্মনির্ভর ভারত’ এর লক্ষ্য পূরণে ট্রান্সপোর্ট ব্যবস্থার উন্নতি অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। আর সেই কারণে পুরোদমে কাজ চালাচ্ছে কেন্দ্র। মাত্র কয়েকদিন আগেই বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে দ্রুত রাস্তা তৈরির রেকর্ড হাসিল করেছে ভারত (India)। কেন্দ্রীয় সড়ক এবং পরিবহনমন্ত্রী নীতিন গডকরি দেশের পরিকাঠামো ব্যবস্থাকে নিয়ে যেতে চান আন্তর্জাতিক পর্যায়ে। আর সেই লক্ষ্যে এবার ভারতের মুকুটে জুড়তে চলেছে নতুন পালক।

এবার ভারত তৈরি করেছে ‘র‍্যাপিড রেল’ (Rapid Rail)। সর্বপ্রথম এই সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার হবে রাজধানী দিল্লী সংলগ্ন ন্যাশনাল ক্যাপিটাল রিজিয়নে। গাজিয়াবাদে পরীক্ষা চালানো হচ্ছে এখন। এইজন্য তৈরি করা হয়েছে ন্যাশনাল ক্যাপিটাল রিজিয়ন ট্রান্সপোর্ট (NCRTC)। এদিন সেই পরীক্ষা করার মুহূর্তের ছবিও শেয়ার করে NRCTC। জানা যাচ্ছে আগামী আগস্ট থেকে ডিসেম্বর অবধি ট্রায়াল চালানো হবে দুহাই থেকে সাহিবাদের মধ্যে।

এখনো পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী রিজিওনাল র‌্যাপিড ট্রানজিট সিস্টেমের (RRTS) অধীনে দুই ধরনের ট্রেন চলবে। প্রথম ট্রেনটির নাম হবে ‘র‍্যাপিড রেল’ যা মোদিপুরম থেকে বেগমপুর প্রতাপপুর হয়ে দিল্লির সরাই কালেখান পর্যন্ত চলবে। দ্বিতীয় ট্রেনটি চলবে মিরাট এর মোদিপুরম থেকে বেগমপুর হয়ে প্রতাপপুর পর্যন্ত। ঘণ্টায় প্রায় ১৮০ কিমি প্রতি ঘন্টা গতিতে চলবে এই ট্রেন।

জানলে অবাক হবেন কিন্তু এই দ্রুতগামী ট্রেন আসার কারণে দিল্লী থেকে মিরাটের মধ্যেকার দূরত্ব কমে যাবে অনেকটাই। মাত্র ৫৫ মিনিটেই দিল্লী থেকে মিরাট পৌঁছানো সম্ভব হবে। প্রতি ১০ মিনিট ছাড়াই মিলবে এই ট্রেন। এছাড়া প্রতিটি ট্রেনে ৬টি বগি থাকবে যার একটি থাকবে মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত। বিজনেস ক্লাস কোচ, ওয়াই ফাই, ক্যান্টিন সমেত এক লাক্সারি ট্রেন হতে চলেছে এটি। আর কেন্দ্র সরকারের এই প্রকল্প যে দেশের পরিকাঠামো ব্যাবস্থাকে আরো কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেবে তাই নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

rail 1 62b1a2ef91558

প্রাথমিক পর্যায়ে সারা দেশের প্রথম র‌্যাপিড ট্রানজিট সিস্টেম করিডোর নির্মাণের কাজ NCRTC এর তত্ত্বাবধানে দিল্লি এবং মিরাটের মধ্যে চলছে। জানিয়ে রাখি যে, এই করিডোরে তিনটি বিভাগ রয়েছে। প্রথম বিভাগটি দুহাই থেকে সাহিবাবাদ পর্যন্ত ১৭ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে চলবে, যেখানে উচ্চগতির ট্রেন চলাচল শুরু হবে ২০২৩ এর মার্চ মাস থেকে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button