ভুলে যান পুরী, গোয়া! পর্যটকদের জন্য দিঘাতে শুরু হচ্ছে দারুণ এই ব্যবস্থা! শুনেই লাফাবেন আনন্দে

সমুদ্র সৈকতের কথা বললে প্রথমেই মাথায় আসে গোয়ার কথা। বলিউড সিনেমার দৌলতে আমাদের মাথায় গেঁথে গিয়েছে গোয়ার নাম। বাঙালিদেরও সমুদ্রসৈকত বললে প্রথম নাম আসবে পুরীর। কিন্ত দিঘা (Digha) প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর উপভোগ্য হলেও সেরকম নাম কুড়োতে পারেনি। তবে দিঘাকে ভালো ট্যুরিষ্ট ডেস্টিনেশন বানাতে উদ্যোগী হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

ক্ষমতায় এসেই দিঘার ভোলবদলের প্রতিশ্রুতি দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপর থেকেই ধীরে ধীরে উন্নয়ন হচ্ছে দিঘার। সমুদ্রের পাশেই দীর্ঘ রাস্তা তৈরি করেছে সরকার। এবার সেখানে শীঘ্রই উদ্বোধন হবে নতুন চার তারা হোটেলের।

বাংলা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টার, দিঘাশ্রীতে প্রথম ‘চার তারা’ তকমার হোটেল চালু হতে চলেছে। ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের সাথে এই নিয়ে চুক্তি সেরে ফেলেছে বিখ্যাত হোটেল চেন সংস্থা ‘এপিজে সুরেন্দ্র গ্রুপ’। জানা যাচ্ছে শুধু হোটেল নয়, সেইসাথে কনভেনশন সেন্টারটিও চালাবেন তারা।

এদিকে হাতবদল হওয়াতে দিঘা-শঙ্করপুর ডেভেলপমেন্ট অথরিটি কর্তৃপক্ষের ধারণা এবার আরো পেশাদারিত্বের সাথে চলবে ওই সেন্টার। তবে জানা যাচ্ছে যে, এই সেন্টার চালু করার মূল কারণ বিদেশি পর্যটক। বিদেশ থেকে আগত পর্যটকদের সুবিধার জন্য তৈরি করা হয়েছে এই হোটেল।

dighasree

প্রসঙ্গত গত ২০১৭ সালে নিউ দিঘায় সাড়ে পাঁচ একর জমির ওপর শুরু হয় দিঘা কনভেনশন সেন্টার তৈরির কাজ। ৭০ কোটি টাকা ব্যয়ে দুই বছর ধরে তৈরি করা হয়েছে এই কনভেনশন সেন্টার। এখানেই ২০১৯ সালের শিল্প-বাণিজ্য সম্মেলন করার সিদ্ধান্ত নেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সেই বিল্ডিংয়ের নাম রাখেন দিঘাশ্রী। প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি, এখানে ৯৬০ আসনের অডিটোরিয়ামের সাথে রয়েছে এগজিবিশন হল। সাথে যেকোন চারতারা হোটেলে যা যা থাকা প্রয়োজন সেই সমস্ত সুবিধাই রয়েছে এখানে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button