ভুলে যান প্যারিস লন্ডন! ভিসা ছাড়াই খুব কম টাকায় ভারত থেকে ঘুরে আসুন এই সাতটি দেশ

ভ্রমণের কথা ভাবলেই আমাদের বেশিরভাগই লন্ডন, প্যারিস এবং সুইজারল্যান্ডের মতো ইউরোপীয় গন্তব্যে ভ্রমণের স্বপ্ন দেখেন। কিন্তু আমরা ভুলেই যাই যে আমাদের আশেপাশের প্রতিবেশী দেশগুলিতেও রয়েছে প্রচুর সৌন্দর্য। আর এগুলি আমাদের থেকে খুব বেশি দূরেও নয়! এখন থেকে দূর-দূরান্তে ভ্রমণে যাত্রা করার আগে, ভারতের কাছাকাছি এই জায়গাগুলি দেখতেই পারেন, যেগুলি খুব কম টাকা খরচা করেই ঘুরতে পারেন । এবং এই গন্তব্যগুলি যে কেবল সস্তা তাই নয়, খুবই কম সময়ের মধ্যে পৌঁছানো সম্ভব।

চলুন দেখে নি কোথায় কোথায় খুব সহজেই জলদি জলদি পৌঁছানো সম্ভব

১) লাওস : আন্তর্জাতিক গন্তব্যগুলির মধ্যে লাওস অন্যতম বিখ্যাত জায়গা। ভারত থেকে মাত্র ৫ ঘন্টার মধ্যেই লাওস পৌঁছানো সম্ভব। লাওস ভ্রমণ একটি আলাদাই অভিজ্ঞতা নিয়ে আসবে আপনার মধ্যে। অনেক নতুন ধরনের অভিজ্ঞতা আসবে জীবনের মধ্যে। পুরনো মন্দির, গুহা, বন, জলপ্রপাত, পাহাড় এবং দুঃসাহসিক সমস্ত আধুনিক স্পোর্টস লাওসের কিছু অনন্য বৈশিষ্ট্য । লাওস পৌঁছাতে একটি ফ্লাইট ৪ ঘন্টা ১৪ মিনিট নেয়।

ভিসা: এক্ষেত্রে ভারতীয় নাগরিকরা পেয়ে যাচ্ছেন বিশেষ ছাড়। ভারতীয় নাগরিকদের লাওসের ভিসার জন্য আগাম আবেদন করতে হবে না। লাওসে আসার পরেই তারা ভিসা পেতে পারে। লাওসে ভারতীয়দের জন্য ৩০ দিনের ভিসা অন অ্যারাইভাল দেওয়া হয়। তবে সমস্ত দর্শকদের অবশ্যই একটি বৈধ পাসপোর্ট থাকতে হবে যা লাওসে প্রবেশের সময় থেকে কমপক্ষে ছয় মাসের জন্য বৈধ।

Covid-19 নির্দেশিকা: আপনি যদি লাওসে ভ্রমণ করার সিদ্ধান্ত নেন, তাহলে COVID-19 এবং আন্তর্জাতিক ভ্রমণের জন্য ভ্রমণ স্বাস্থ্য বিজ্ঞপ্তি দেখে নিতে হবে।
পর্যটকদের যাত্রার ৭২ ঘন্টা আগে একটি RT-PCR পরীক্ষা করতে হবে, সেইসাথে আগমনের সময় একটি RDT (র‍্যাপিড ডায়াগনস্টিক টেস্ট) করতে হবে।

২) দুবাই : পরবর্তী গন্তব্যস্থল দুবাই। UAE ভারতীয়দের মধ্যে এমনিতেই অনেক বিখ্যাত এবং এটি এমন একটি জায়গা যেখানে খুব সহজেই যাওয়া যায়।কি নেই দুবাইতে, বিশ্বের গভীরতম সুইমিং পুলে ডাইভিং থেকে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় শপিং মল, সবই রয়েছে দুবাইতে। এছাড়া সেখানের মরুভূমিতে রয়েছে সাফারির সুবিধা। দুবাই মানেই এক আলাদাই আকর্ষণ।

এককথায় দুবাই এক পাওয়ার হাউস! অভিজ্ঞতার এক আলাদাই জায়গা দুবাই এবং মাত্র ৩ ঘন্টা ৩৫ মিনিটে দুবাই পৌঁছানো সম্ভব।

ভিসা: যেকোনো ভারতীয় নাগরিকদের জন্য দুবাই (UAE) তে আগমনের ১৪ দিনের বৈধ ভিসা রয়েছে।

Covid-19 নির্দেশিকা: একটি WHO বা সংযুক্ত আরব আমিরাত (UAE) দ্বারা অনুমোদিত বৈধ ভ্যাকসিনেশন সার্টিফিকেট দেখালে অনুমোদন পাওয়া সম্ভব।
এছাড়া একটি বৈধ নেতিবাচক COVID-19 PCR পরীক্ষার শংসাপত্রও জোগাড় করতে হবে।

৩) ওমান: বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ এবং সবচেয়ে শান্তিপূর্ণ দেশগুলির মধ্যে একটি হিসাবে স্থান পেয়েছে ওমান। ওমানে রয়েছে সুন্দর এবং এর বিশ্ব-মানের অত্যাশ্চর্য রিসর্ট। ছবির মত সুন্দর এই দেশটি হানিমুনের জন্য একটি দুর্দান্ত গন্তব্য! মাত্র ৩ ঘন্টা ৩০ মিনিটেই ওমানে পৌঁছানো সম্ভব।

ভিসা: ভারতীয় নাগরিকরা ওমানের জন্য সহজেই একটি ই-ভিসা পেতে পারেন।

কোভিড-১৯ নির্দেশিকা: যাত্রীদের অবশ্যই যাত্রার ৭২ ঘন্টা আগে করা নেগেটিভ COVID-19 CRISPR, RT-LAMP বা RT-PCR পরীক্ষাটি করে রাখা উচিৎ।
এছাড়া একটি COVID-19 টিকা দেওয়ার শংসাপত্র দেখতে হবে যাত্রীদের।

৪) মালদ্বীপ : ভারতীয় সিনেমা জগত বলিউডের সবচেয়ে প্রিয় ছুটির গন্তব্যস্থল হলো মালদ্বীপ। ভারত থেকে মাত্র অল্পই দূরে মালদ্বীপ। মালদ্বীপ হল অত্যাশ্চর্য এক জায়গা। যেখানে রয়েছে স্বচ্ছ নীল জল এবং অত্যাশ্চর্য সাদা বালির সৈকত। এই যাত্রায় যদি বিলাসবহুল হোটেলে না যেতে চান তবে দ্বীপ দেশটির জলের ওপর থাকা চমত্কার রিসর্টগুলির কথা ভাবতেই পারেন। ভারত থেকে মালদ্বীপে পৌঁছতে
সময লাগবে ৪ ঘণ্টা।

ভিসা: ভারতীয় পাসপোর্ট ধারীদের মালদ্বীপে যাওয়ার সময় ভিসা নিয়ে যেতে হবে না। সেদেশে পৌঁছানোর পরেই পাওয়া সম্ভব ভিসা।

কোভিড-১৯ নির্দেশিকা: মালদ্বীপে যাওয়ার জন্য ৪৮ ঘন্টা আগে ফিরে আসর আগে একটি স্বাস্থ্য ঘোষণাপত্র পূরণ করতে হবে। COVID-19 টিকা দেওয়ার শংসাপত্র সহ থাকা যাত্রীদের কোনো অসুবিধা হবে না মালদ্বীপে।

৫) থাইল্যান্ড : দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার রত্ন থাইল্যান্ড। উন্নত এবং সব ধরনের আধুনিক আরাম-আয়েশের ব্যবস্থা রয়েছে এখানে। বন্য অভিজ্ঞতার জন্য থাইল্যান্ড ভ্রমণ করে যায়। এখানে দক্ষিণে রয়েছে বিশ্বমানের সমুদ্র সৈকত এবং উত্তরের পাহাড়ী গ্রাম। সব রকমের অভিজ্ঞতার জন্য থাইল্যান্ড এক অত্যাশ্চর্য্যক জায়গা। ব্যাংকক এবং পাটায়া তো এমনিই বিখ্যাত শহর। মাত্র ৪ ঘন্টার মধ্যে থাইল্যান্ড পৌঁছানো সম্ভব।

ভিসা: থাইল্যান্ডে প্রবেশের জন্য ভারতীয়দের ভিসার প্রয়োজন। তবে দুই সপ্তাহের জন্য ভিসা অন অ্যারাইভাল পাওয়া সম্ভব এদেশে।

Covid-19 নির্দেশিকা: ১৮ বছরের বেশি বয়সী সমস্ত ভ্রমণকারীদের থাইল্যান্ডে প্রবেশের জন্য সম্পূর্ণরূপে টিকা নেওয়া থাকলে তবেই সম্ভব হবে। এছাড়া সমস্ত প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য RT-PCR টেস্ট আবশ্যক।

৬) সিঙ্গাপুর : ভবিষ্যত বিস্ময় এবং আকাশচুম্বী বিল্ডিংগুলি দেখার জন্য অবশ্যই সিঙ্গাপুরে যেতে হবে। সিঙ্গাপুর তার সময়ের চেয়ে ঢের এগিয়ে রয়েছে। সারা দেশ রয়েছে উজ্জ্বল আলোকে ঢাকা। যা রাতে চারপাশে দোল দিয়ে তার আধুনিক স্থাপত্যকে তুলে ধরে। সিঙ্গাপুরে রয়েছে চিত্তাকর্ষক এবং নতুন শপিং মল, চমৎকার ডাইনিং ভেন্যু এবং দর্শনীয় দৃশ্য সহ বিলাসবহুল হোটেল।
ভারত থেকে সিঙ্গাপুরের ফ্লাইটে সময় লাগে মাত্র ৪ ঘন্টা ৩০ মিনিট।

ভিসা – ভারতীয়দের জন্য দ্রুত মেলে সিঙ্গাপুরের ট্যুরিস্ট ভিসা। সিঙ্গাপুর দূতাবাস দ্বারা জারি করা ট্যুরিস্ট ভিসা পর্যটকদের সর্বোচ্চ ৩০ দিন থাকার অনুমতি দেয়।

Covid-19 নির্দেশিকা: এদেশে কোয়ারেন্টাইন ছাড়া ঢুকতে গেলে সমস্ত পর্যটকদের COVID-19 ভ্যাকসিন নিতে হবে। এছাড়া সমস্ত যাত্রীদের অবশ্যই একটি RT-PCR পরীক্ষা করতে হবে।

৭) ভুটান : এই লিস্টের সর্বশেষ দেশ হলো ভুটান। পাহাড়ের কোলে অবস্থিত ভুটান হল শান্তির স্বর্গরাজ্য। এখানের আশ্চর্যজনক তুষার শিখর পর্বতমালা এবং ছায়াময় বনের মনোরম প্রাকৃতিক দৃশ্য এদেশকে আলাদাই সুন্দর করে তোলে। শুধু তাই নয়, ভুটান পৃথিবীর একমাত্র দেশ যেদেশের ৭২% বন জংগলে আচ্ছাদিত। মনোরম পরিবেশ ছাড়াও ভুটান ঐতিহ্যবাহী বৌদ্ধ সংস্কৃতির এক অনন্য জায়গা। এই সুন্দর ড্রাগনের দেশে পৌঁছাতে সময় লাগে মাত্র ২ ঘণ্টা।

ভিসা: কোনো ভারতীয় পাসপোর্টধারীকেই ভুটানে ভ্রমণের জন্য ভিসার প্রয়োজন নেই।

Covid-19 নির্দেশিকা: যারা ভুটানে যেতে চান তাদের অবশ্যই সম্পূর্ণরূপে টিকা নিতে হবে। এবং তাদের অবশ্যই একটি RT-PCR পরীক্ষা করিয়ে নিতে হবে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button