অভিনয়ে আসার জন্য অত্যাচারিত! জি বাংলার এই অভিনেত্রীর কাহিনী শুনলে চোখে জল আসব

দিদি নম্বর ওয়ান (Didi No. 1)… বছরের পর বছর ধরে জি বাংলার (Zee Bangla) গৌরব বাড়িয়ে সম্প্রচারিত হয়েই চলেছে। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে টিভি সিরিয়াল, সিনেমার কলাকুশলীরা এই মঞ্চে এসে শো-এর গৌরব অবধি বাড়িয়েছেন।

সবথেকে বড় কথা, এই শো-এর সঞ্চালনার দায়িত্বে রয়েছেন অভিনেত্রী রচনা বন্দ্যোপাধ্যায় (Rachna Banerjee)। বিকেল হলেই মানুষের ঘরে ঘরে এই বিশেষ শো-টি চলা মাস্ট। বহু মানুষ এমন রয়েছেন যারা এই নন ফিকশন শো-টি দেখতে খুবই পছন্দ করেন। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে বহু সেলেব নিজেদের জার্নির কথা এই শো-এর মাধ্যমে সকলের সামনে তুলে ধরেন।

   

এবারও কিন্তু তার ব্যতিক্রম হল না। সম্প্রতি এই দিদি নম্বর ওয়ানের একটি প্রোমো প্রকাশ্যে এসেছে, যা দেখে সকলেই উচ্ছ্বসিত একপ্রকার। প্রোমো অনুযায়ী, চলতি সপ্তাহে এই শো-এ অংশগ্রহণ করতে দেখা গিয়েছে জি বাংলার আরেকটি মেগা ধারাবাহিক কার কাছে কই মনের কথা সিরিয়ালের কলাকুশলীদের।

অভিনয়ে আসার জন্য কতজন কত স্ট্রাগল করে এসেছেন সেটা তো সকলেই জানে কিন্তু অভিনয়ে আসার জন্য যে এক অভিনেত্রীকে চরম অত্যাচারের শিকার হতে হয়েছে সেটা হয়তো কেউ জানেন। আর তিনি অন্য কেউ নন, হরগৌরি পাইস হোটেল থেকে শুরু করে কার কাছে কই মনের কথা (Kar Kachhe Koi Moner Kotha) সিরিয়ালে অভিনয় করা বর্ণিনী চক্রবর্তী (barninee chakraborty)।

বর্তমানে বর্ণিনী কার কাছে কই মনের কথা সিরিয়ালে প্রিয়ার চরিত্রে অভিনয় করছেন। এবারে দিদি নম্বর ওয়ানে এসে অভিনেত্রী যা জানান তা শুনে সকলেই চমকে যান। অভিনেত্রী জানান, ‘ছোটবেলা থেকেই মধ্যবিত্ত পরিবারে বড় হওয়া। ডান্স বাংলা ডান্স থেকে শুরু করে সারেগামাতে ব্যাকআপে কাজ করেছি। তবে ধীরে ধীরে যখন একটু একটু করে বাইরের জগতটা চিনতে শিখলাম তখন আমাকে বাড়ি থেকে বলা হল সবকিছু বন্ধ করে দেওয়া হবে। আরও বলা হয়, নাচ ছিল ঠিক আছে অভিনয় করা যাবে না। মানে রীতিমতো মারধর করা হয়। সেইসময়ে ডিশিসন নিতে হয়েছিল যে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যাবো।‘

বর্ণিনী জানান, ‘আমার অভিনয় করা নিয়ে বাড়ির সবাই বিরোধিতা করেছিল। এরপর বাড়ি ছেড়ে কলকাতায় আসা এবং সেখানে ভাড়ায় থাকাতে শুরু করি। ২০২১ সালে আমার জার্নি শুরু হয়।‘

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর