দাম মাত্র ৩৫ হাজার টাকা! ভারতে লঞ্চ হল ১০০ কিমি রেঞ্জের ইলেক্ট্রিক বাইক, বৈশিষ্ট্য তাক লাগানোর মতো

ভারতে এখন ইলেক্ট্রিক বাহনের বিপ্লব ঘটছে। একের পর এক টেক স্টার্টআপ সংস্থা ভারতে স্কুটার, গাড়ি সহ একাধিক আধুনিক ইলেক্ট্রিক বাহন লঞ্চ করছে। আর এদিন লঞ্চ হলো Baaz Bikes। এই ইলেক্ট্রিক বাইকটি পুরোপুরি ভারতেই তৈরি হয়েছে। বাজারে এই প্রথম বদলযোগ্য ব্যাটারি সিস্টেমের সাথে ই-বাইক লঞ্চ হয়েছে। এখানে দেশের বিপুল ই কমার্স মার্কেটের কথা মাথায় রেখে তৈরি করা হয়েছে।

মাত্র ৩৫,০০০ টাকাতেই বৈদ্যুতিক স্কুটার লঞ্চ করেছে কোম্পানি। যদিও এই দামের মধ্যে গাড়িটির ব্যাটারির দাম যোগ করা হয়নি। গ্রাহকরা  নিজেদের পছন্দমত ব্যাটারি লাগিয়ে নিতে পারেন এই গাড়িতে। এই স্কুটার ডেলিভারি রাইডারদের খুব সহায়তা করবে। বাজ কোম্পানির ডিলারশিপ থেকে এই বৈদ্যুতিক স্কুটারগুলি কিনতেও পারেন অথবা ভাড়াও নিতে পারেন। ফলে ই কমার্স সাইটের সাথে যুক্তডেলিভারি বয় দের খরচ কমিয়ে দিতে পারে এই স্কুটার।

   

কি কি বৈশিষ্ট্য রয়েছে এখানে : Baaz বৈদ্যুতিক স্কুটারের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে কথা বলতে গেলে প্রথমেই স্কুটারের রেঞ্জ সম্পর্কে জানাতে হয়। দৈনিক ১০০ কিমি অবধি ব্যাবহার করা যাবে এই ই স্কুটি। দৈর্ঘ্যে ১৬২৪ মিলিমিটার এবং প্রস্থে ৬৮০ মিলিমিটার, উচ্চতা রয়েছে ১০৫২ মিলিমিটার। Baaz ইলেকট্রিক স্কুটারের সর্বোচ্চ গতি ঘণ্টায় ২৫ কিলোমিটার। সেখানে ডুয়াল ফর্ক হাইড্রোলিক সাসপেনশন দেওয়া হয়েছে এবং পিছনের দিকে ডুয়াল শক অ্যাবজর্বার রাখা হয়েছে। পার্কিং লটে স্কুটারটি সনাক্ত করতে একবার বোতাম টিপলেই হবে।

গাড়িটির ব্যাটারির নাম হলো এনার্জি পড। ব্যাটারির ওপর অ্যালুমিনিয়ামের আবরণ দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়েছে। এই ব্যাটারি তৈরি হয়েছে লিথিয়াম-আয়ন সেল দিয়ে। ব্যাটারির মোট ওজন ৮.২ কেজি। ১০২৮ Wh ক্ষমতাসম্পন্ন এই ব্যাটারি। সাথে জল থেকে বাঁচানোর জন্য IP68 এর রেটিং দেওয়া হয়েছে।

মেশিনটিকে সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয় অপারেশনের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে। সবচেয়ে বড় ব্যাপার হলো ভারতে এত বিবিধ আবহাওয়া থাকার পরেও যেকোন জায়গাতেই, যেকোন আবহাওয়াতে এই ই স্কুটি ব্যাবহার করা সম্ভব। এছাড়া গাড়িতে ৯টি ব্যাটারি রিচার্জিং বক্স রাখা হয়েছে। উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থার জন্য সেখানে 4G LTE IoT রিয়েল-টাইম ডেটা মনিটরিং এর ব্যাবস্থা রাখা হয়েছে।

সম্পর্কিত খবর