৮০০ কোটি ছাড়াল পৃথিবীর জনসংখ্যা, এক বছরেই চিনকে ছাড়িয়ে যাবে ভারত! আসবে আকাল

বিশ্বের জনসংখ্যা আজ ৮০০ কোটি ছাড়িয়েছে। পৃথিবীতে মানুষ এত বড় পরিবারে পরিণত হয়েছে যে, আগামী বছরগুলোতে খাদ্যশস্যসহ সব চাহিদার ঘাটতি দেখা দিতে পারে। তবে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন এই শতাব্দীতে এমন একটি সময় আসবে যখন জনসংখ্যা বৃদ্ধি স্থিতিশীল হবে এবং তারপরে হ্রাসও পাবে। কিন্তু গত ৪৮ বছরে জনসংখ্যার যে বৃদ্ধি, তা মর্মান্তিক। ১৯৭৪ সালে বিশ্বের জনসংখ্যা ছিল মাত্র ৪০০ কোটি, যা এখন ৮০০ কোটি অতিক্রম করেছে। ১৯৫০ সালে বিশ্বের জনসংখ্যা ছিল মাত্র আড়াই কোটি। শুধু তাই নয়, ২০৮৬ সাল এমন একটি বছর হবে যখন এই পৃথিবীতে মানুষের জনসংখ্যা ১ হাজার কোটির থেকে অনেক বেশি হবে।

যদি আমরা পরিসংখ্যান দেখি এখনও সবচেয়ে বেশি জনসংখ্যার দেশ চিন। সেখানে ১৪২ কোটি এবং দ্বিতীয় ভারত, যার জনসংখ্যা ১৪১ কোটি। বলা হচ্ছে যে ভারতের জনসংখ্যা যে গতিতে বাড়ছে, তাতে ২০২৩ সালে চীনকে পিছিয়ে দেবে। তবে, ২০৫০ সালের দিকে জনসংখ্যা বৃদ্ধি স্থিতিশীল হবে এবং তারপরে হ্রাসও দেখা যাবে। এ কারণেই ভারত, চিনসহ বিশ্বের অনেক দেশেই আগামী কয়েক দশকে যুব জনসংখ্যা হ্রাস পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে, যা কর্মশক্তির ওপর বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে।

প্রকৃতপক্ষে, বিশ্বের অনেক দেশে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ইতিমধ্যেই প্রতিস্থাপন স্তর অর্থাৎ ২.১-এর নীচে নেমে গিয়েছে। বলা হচ্ছে সারা বিশ্বের জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ২০৫৫ সাল পর্যন্ত ২.১ অর্থাৎ প্রতিস্থাপন স্তরে থাকবে। জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, জনসংখ্যার সর্বোচ্চ বৃদ্ধি ঘটেছে ২০১২ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে। এই সময়ে ১৪ কোটির বেশি শিশুর জন্ম হয়েছে। বলা হচ্ছে, কিছু উত্থান-পতনের সঙ্গে ২০৪৩ সাল থেকে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার কমে যেতে পারে। এখনও পর্যন্ত জনসংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছে, কিন্তু এখন জনসংখ্যার সাথে পরবর্তী ১০০ কোটি যোগ করতে ১২ বছর সময় লাগবে।

যারা জনসংখ্যা সংক্রান্ত বিষয় বোঝেন তারা বলছেন, মৃত্যুর হার কমে যাওয়ায় জনসংখ্যা বাড়ছে। গত ৭০ বছরে চিন ও ভারত বিশ্বের জনসংখ্যা বৃদ্ধিতে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছে। এই দুই দেশের জনসংখ্যা একত্র করলে তা হয় প্রায় ২৮০ কোটির বেশি। তবে আগামী সময়ে ভারত ও চিনের প্রবৃদ্ধি কমে যাবে। বলা হচ্ছে, একবিংশ শতাব্দীর শেষ দশকে ভারত ও চিনের পরিবর্তে আফ্রিকার দেশগুলোর জনসংখ্যা দ্রুত বাড়বে। এই দেশগুলির মধ্যে তানজানিয়া, নাইজেরিয়া এবং কঙ্গো অন্তর্ভুক্ত করবে।

india population

যদি আমরা জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার দেখি তাহলে ১৯৫০ সালে পৃথিবীতে মানুষের সংখ্যা ছিল আড়াইশ কোটি, যা পরবর্তী ১০ বছরে বেড়ে দাঁড়ায় ৩০০ কোটি। এরপর ১৯৭৪ সালে তা বেড়ে ৪বিলিয়ন বা ৪০০ কোটি গিয়ে দাঁড়ায়। তারপর পরবর্তী ১৩ বছরে অর্থাৎ ১৯৮৭ সালে এই সংখ্যা দাঁড়ায় ৫ বিলিয়ন। যাইহোক, পরবর্তী এক বিলিয়ন অর্থাৎ ৬০ মিলিয়ন পরিসংখ্যানে পৌঁছতে মাত্র ১২ বছর লেগেছিল। তারপর ২০১১ সালে বিশ্বের জনসংখ্যা বেড়ে ৭ বিলিয়ন হয়েছে এবং এখন ১১ বছরে এই সংখ্যা ৮ বিলিয়ন অতিক্রম করেছে। বলা হচ্ছে যে আগামী কয়েক দশকে জনসংখ্যা বৃদ্ধিতে কিছুটা স্থবিরতা থাকবে এবং ২০৮৬ সালের মধ্যে আমাদের জনসংখ্যা ১০.৪ বিলিয়নে পৌঁছাবে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button