আহমেদাবাদের পিচ নিয়ে বড় আপডেট! কিউরেটর জানালেন কত রান করলে জয় নিশ্চিত

আগামী রবিবার আহমেদাবাদের (Ahmedabad) নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে (Narendra Modi Stadium) অনুষ্ঠিত হবে ভারত (India) বনাম অস্ট্রেলিয়ার (Australia) মধ্যে ওয়ানডে বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচ। এই ম্যাচের আগে আবারও পিচ নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে আহমেদাবাদের পিচ কিউরেটরের বক্তব্যও উঠে এসেছে। সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্ট থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, আহমেদাবাদের পিচ কিউরেটর জানিয়েছেন, ফাইনাল ম্যাচে এই পিচে ৩১৫ রানের টার্গেট রক্ষা করা যাবে।

   

rohit sharma cummins

সাধারণত আহমেদাবাদের পিচের মেজাজ এমন কিছু যা এখানকার ব্যাটসম্যানদের সহায়তা করে। তবে যেহেতু এটি একটি আইসিসি টুর্নামেন্ট, আইসিসি ব্যাটসম্যান এবং বোলার উভয়ের জন্যই উইকেটে কিছু রসদ রাখার জন্য মনোনিবেশ করতে পারে। সেহেতু আশা করা হচ্ছে পিচে বোলাররাও কিছু সহায়তা পেতে পারেন। নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে এখনও পর্যন্ত যত ম্যাচ খেলা হয়েছে, তার সবকটিতেই অনেক বৈচিত্র্য দেখা গিয়েছে। প্রথম ম্যাচে প্রচুর রান উঠলেও পরের দিকের ম্যাচগুলোতে বোলাররাও নিজেদের প্রতিভা দেখানোর সুযোগ পেয়েছেন। প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ড এখানে ৩৫০ রানের বেশি রান করার পরও হেরে গিয়েছিল।

ফাইনাল ম্যাচের আগে এই মাঠে নেটে অনুশীলন করেছে ভারতীয় দল। অধিনায়ক রোহিত শর্মাও এ সময় পিচ পরিদর্শন করেন। অধিনায়ক ছাড়াও প্রধান কোচ রাহুল দ্রাবিড়, ব্যাটিং কোচ বিক্রম রাঠৌর এবং বোলিং কোচ পরম মহাম্ব্রেকেও পিচ পরিদর্শন করতে দেখা যায়। এই উইকেটে এখনও পর্যন্ত চারটি ম্যাচ হয়েছে। প্রথম ম্যাচের কথা বাদ দিল তিনটি ম্যাচেই কম স্কোর হয়েছে। এই পিচ ব্যাটসম্যানদের জন্য সহায়ক হলেও ধীর গতির বোলিং এখানে সফল হয়েছে। শুধু তাই নয়, স্পিনাররাও এখানে কার্যকর প্রমাণিত হতে পারেন।

pitch rohit

এই মাঠে মোট ৩০টি ওয়ানডে খেলা হয়েছে। যার মধ্যে প্রথমে ব্যাট করতে নামা ১৫ বার জিতেছে, ১৫ বার জিতেছ পরে ব্যাট করা দল। অর্থাৎ প্রতিযোগিতাটা সেয়ানে সেয়ানে হয় এই মাঠে। সব মিলিয়ে এ ক্ষেত্রে ফাইনাল ম্যাচে জোরালো প্রতিদ্বন্দ্বিতা হতে পারে। ব্যাটসম্যান ও বোলার উভয়ই সাহায্য পেতে পারেন।