বাংলাদেশি শিল্পীরা পশ্চিমবঙ্গে এসে দিব‍্যি কাজ করছে, অথচ আমরা …! বিস্ফোরক চিরঞ্জিৎ চক্রবর্তী

হালে কলকাতায় (Kolkata) অনুষ্ঠিত হচ্ছে চতুর্থ বাংলাদেশ (Bangladesh) চলচ্চিত্র উৎসব। এখনো পর্যন্ত সেই কার্যক্রম সুপারহিট। এবছর বাংলাদেশ ফাটিয়ে দিয়েছে সিনেমার ক্ষেত্রে। এই বছরের বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসবের প্রধান আকর্ষণ ছিল চঞ্চল চৌধুরী (Chanchal Chowdhury) অভিনীত ‘হাওয়া’ (Hawa)। এমনকি অস্কার এর মঞ্চেও গিয়েছে ছবিটি।

ছবি নিয়ে ভালই উন্মাদনা দেখা যায় এপার ওপার বাংলায়। এতদিন বাংলাদেশিদের মধ্যে এই ছবি বেশ ভালই জনপ্রিয় হয়, এবার দেখা যায় বাঙালিও ছবিটি বেশ পছন্দ করেছে। শনিবারদিন সকাল থেকেই নন্দন ভিড়ে গিজগিজ করতে থাকে। জনপ্রিয় ছবি দেখার জন্য ভিড় করেন বহু মানুষ।

কিন্তু সেই নিয়ে বেশ নাখুশ বর্ষীয়ান অভিনেতা চিরঞ্জিৎ চক্রবর্তী (Chiranjeet Chakraborty)। তিনি ছবি সম্পর্কে মন্তব্য করেছেন, ‘হাওয়া তৈরি হয়েছে সাউথের ছবি, বাংলাদেশের ছবি, হিন্দি ছবি নিয়ে। আর আমাদের ছবি, থাক আর বললাম না!’ আসলে তিনি গোঁসা করেছেন বাংলাদেশের শিল্পীরা এদিকে এসে জাঁকিয়ে বসলেও এপারের শিল্পীদের ওদিকে দেখতে না পাওয়ায়।

অবশ্য এমনটা নয় যে তিনি বাংলাদেশী নাটক পছন্দ করেননা। সংবামাধ্যমে বাংলাদেশী নায়ক, নায়িকাদের মুন্ডুপাত করতে করতে এও বলেন যে, রোজ ট্রেডমিলে হাঁটতে হাঁটতে নাটক দেখেন তিনি। নাটকগুলির বড় সুবিধা হলো এর দৈর্ঘ্য। ৪০-৪২ মিনিট দৈর্ঘ্যের নাটক দেখতে যেমন সুবিধার তেমনই অভিনয়ও মন কেড়েছে।

অবশ্য শেষে তিনি তারিফ করেছেন বাংলাদেশী নাটকগুলোর। তার মতে টলিউড টেলিফিল্ম বানানোর চেষ্টা করলেও সেগুলো অতিরিক্ত ইন্টেলেকচুয়াল ধরণের হওয়ায় মানুষের পছন্দ হয়নি। কিন্তু কিন্তু বাংলাদেশের নাটকগুলো অনেক সহজ সরল হওয়ায় দর্শক মননে দাগ কাটতে পেরেছে।

chiranjeet 1613746975411 1613746989931 1617532416958

তার কথা থেকে বোঝা যাচ্ছে যে, তিনি এপার বাংলার নাটকগুলোকে অতিরিক্ত আঁতেল মার্কা বলতে চেয়েছেন। এদিকে ওদিকের নাটক গুলো সহজ সরল হওয়ায় মানুষের মধ্যে তার গ্রহণযোগ্যতা বেড়েছে। দিনশেষে তিনি বার্তা দিয়েছেন টলিউডকে আঁতেল বা ইন্টেলেকচুয়াল নাটক থেকে বেরিয়ে এসে সাধারণ মানুষের জন্য নাটক বানবার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button