‘মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা”, মহাকাঙাল পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বড় অ্যাকশন চিনের! দিল হুঁশিয়ারিও

ভয়াবহ অর্থিক সংকটের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে পাকিস্তান (Pakistan)। অবশ্য ভয়ংকর শব্দটাও পাকিস্তানের বর্তমান অবস্থার জন্য কম ভয়ংকর! পাকিস্তানের অবস্থা খুবই সংকটজনক এবং সেইসাথে দেশটির ভবিষ্যত নিয়েও কোনো আশা নেই। বিদেশী মুদ্রার ভান্ডার তলানিতে, সৌদি আরবের থেকে ১ বিলিয়ন ডলার ধার নিয়ে নিজেদের ব্যাংকে রেখেছে তারা। তাতেই ডিফল্ট হওয়া থেকে বেঁচে আছে। কিন্তু এবার সমস্যা এসেছে পাকিস্তানের ‘আয়রন ব্রাদার’ চিনের (China) তরফ থেকে।

নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য যেমন, আটা, চিনি, চা ইত্যাদির দাম যেহারে বেড়েছে তাতে আমজনতার শ্বাসরুদ্ধ হওয়ার অবস্থা। এতদমধ্যে ব্রাদারহুডের ডংকা বাজানো চিনের তরফে নয়া ঝটকা এসেছে পাকিস্তানের ওপর। চিন তাদের পাকিস্তানে অবস্থিত দূতাবাসই বন্ধ করে দিচ্ছে!

একদিকে সন্ত্রাসবাদ মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। দেশের অন্দরে TTP (তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান), BLA (Baloch Liberation Army) এবং মুদ্রাস্ফীতির মতো সমস্যার পাশাপশি বৈশ্বিক স্তরেও চাপ বেড়েছে অনেকখানি। এরইমধ্যে বন্ধুত্ব ভুলতে বসেছে চিন। পাকিস্তানে অবস্থিত দূতাবাস বন্ধ করে দিতে চলেছে নিজেদের সুরক্ষার জন্য।

সবচেয়ে বড় ব্যপার চিনের তরফে এই নিয়ে কোনো নির্দিষ্ট কারণও জানানো হয়নি! শুধু তাইনা, আগামী কোন সময়ে এই দূতাবাস খোলা হতে পারে সেই নিয়েও কিছু জানানো হয়নি। ১৩ ফেব্রুয়ারি থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করা হয়েছে চিনা কনস্যুলট। সাথে পাকিস্তানে থাকা চিনের নাগরিকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সতর্ক থাকতে। এবার চিনের এই সিদ্ধান্তে যেমন মুখ পুড়েছে পাকিস্তানের তেমনই চিনের ভিসা পাওয়া এবার আরো বড় সমস্যার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

গত শনিবারই একটি নোটিশে চিনা বিদেশ মন্ত্রণালয়ের কনস্যুলার বিভাগ চিনা নাগরিকদের সতর্ক করে জানিয়েছে যে, পাকিস্তান তাদের নিরাপত্তার জন্য একটি বড় বিপদ হতে পারে। এদিকে কয়েকদিন আগেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করেন যে, তারা দেশের নাগরিক ও বিদেশিদের সুরক্ষা দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তারপরও এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ায় স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে যে, চিন পাকিস্তানকে আর নিরাপদ মনে করছেনা।

shahbaz sharif

সম্প্রতি একটি মসজিদে হামলা করে TTP ১০০ এরও বেশি নিরাপত্তাকর্মীকে হত্যা করে। তারপর থেকে সারাবিশ্বেই এক আতংকের পরিবেশ সৃষ্টি হয়। অনেকের ধারণা সেই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে চিন। অন্তর্বর্তী সন্ত্রাসবাদী হামলা ছাড়াও পাকিস্তান কাঙাল হওয়ার একদম শেষ পর্যায়ে পৌঁছে গেছে পাকিস্তান। এখন দেখার কতদিন পাকিস্তান ভেঙ্গে কয়েক টুকরোয় ভাঙ্গে!

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button