৩০ টাকা খরচে চলবে ১৮৫ কিমি! ভারতে তৈরি হল সবথেকে সস্তার গাড়ি, দাম বাইকের সমান

সাগরঃ বিশ্বের প্রতিটি মানুষই  প্রতিদিন নতুন কিছু আবিষ্কার করে চলেছে। এর মধ্যে কিছু অনন্য উদ্ভাবন সবাইকে অবাক করে। বন্ধুরা, আজ আমরা আপনাকে মধ্যপ্রদেশের সাগরে অবস্থিত একটি কলেজের একজন ছাত্রের কথা বলতে যাচ্ছি, যে নিজের প্রচেষ্টায় খুব সাশ্রয়ী মূল্যের গাড়ি তৈরি করেছে।

বলে দিই যে, এই ছাত্রের তৈরি বৈদ্যুতিক গাড়িটি খুব সস্তা। এই গাড়িটি একবার চার্জে 185 কিলোমিটার পর্যন্ত সফর করতে পারে। যেভাবে প্রতিনিয়ত পেট্রোলের দাম বাড়ছে, সেই অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা এই গাড়িটিকে ভবিষ্যতের রাইড হিসেবে নাম দিতে পারি।

বর্তমান যুগে বেশিরভাগ মানুষ ইলেকট্রিক গাড়ি কিনতে পছন্দ করেন। অনেক কোম্পানি ইলেকট্রিক গাড়িও লঞ্চ করেছে। এমন পরিস্থিতিতে মধ্যপ্রদেশের সাগরে অবস্থিত একটি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের এক ছাত্র তৈরি করেছেন এই সাশ্রয়ী বৈদ্যুতিক গাড়ি। চলুন এই ইলেকট্রিক গাড়ির কিছু বৈশিষ্ট্যের সাথে পরিচয় করিয়ে দিই।

বন্ধুরা, আপনাদের বলে দিই যে, এই গাড়িটি তৈরি করেছেন তিনি মধ্যপ্রদেশের সাগরের একজন ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র। সেই চাহত্রেরর নাম হিমাংশু প্যাটেল এবং সে মাত্র 5 মাসে এই বৈদ্যুতিক গাড়িটি তৈরি করেছেন। হিমাংশু প্যাটেলের তৈরি এই বৈদ্যুতিক গাড়িতে চালকসহ 5 জন খুব আরামে বসতে পারবেন। একবার এই গাড়িটি সম্পূর্ণ চার্জ হয়ে গেলে 185 কিলোমিটার দূরত্ব অতিক্রম করতে পারবে। শুধু তাই নয়, হিমাংশু প্যাটেলেরও দাবি এই গাড়ি ঘণ্টায় 50 কিলোমিটার গতিতে পৌঁছতে পারে।

বলে দিই, এই বৈদ্যুতিক গাড়িটি একবার সম্পূর্ণ চার্জ হতে মাত্র 4 ঘন্টা সময় নেয় এবং এটি একবার চার্জ করতে 30 টাকা খরচ হয়। রিমোট কন্ট্রোল স্টার্ট এবং স্টপ ফিচারও রয়েছে এই গাড়িতে। রিভার্স, ইলেকট্রনিক স্পিড মিটার, ব্যাটারি, পাওয়ার মিটার, ফাস্ট চার্জিং, ইলেকট্রিক সেফটি এবং অ্যান্টি থেফ অ্যালার্মের মতো আরও অনেক ফাংশন এই গাড়িতে পাওয়া যায়।

এই বৈদ্যুতিক গাড়িটি সবচেয়ে কম দামের বলে দাবি করা হচ্ছে। এই বৈদ্যুতিক গাড়িটি সবচেয়ে সস্তা গাড়ি। এটি তৈরিতে মাত্র 2 লাখ টাকা খরচ হয়েছে বলে দাবি করা হচ্ছে। ভবিষ্যতে এই গাড়িটি বেশি পরিমাণে তৈরি হলে দাম আরও কম হওয়ার আশা রয়েছে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button