যেন ঝকঝকে হীরে! প্রকাশ্যে এল ভারতের প্রথম বুলেট ট্রেন স্টেশনের ছবি

নয়া দিল্লিঃ মুম্বাই এবং আহমেদাবাদের মধ্যে বুলেট ট্রেন চালানোর প্রস্তুতি পুরোদমে চলছে। এর জন্য করিডোর প্রকল্পটি 2017 সালে উদ্বোধন করা হয়েছিল। এখন এর আগে স্টেশনের কিছু ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে। এর প্রথম স্টেশন হবে সুরাটে। রেলওয়ে সুরাটে নির্মিত বুলেট ট্রেন স্টেশনের গ্রাফিকাল ডিজাইনের প্রথম ঝলক প্রকাশ করেছে।

ভারতীয় রেল বলছে, ডায়মন্ডের নকশায় তৈরি এই বহুতল স্টেশনে সেন্ট্রালাইজড এসি, এসকেলেটর, বিজনেস লাউঞ্জের মতো বিশ্বমানের সুবিধা থাকবে। রেল প্রতিমন্ত্রী দর্শন জারদোশ তার টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে স্টেশনের কিছু ছবি শেয়ার করেছেন। তিনি লিখেছেন যে, আমি আপনাদের সাথে সুরাটের বুলেট ট্রেন স্টেশনের প্রথম ঝলক শেয়ার করছি। এটি হবে অত্যাধুনিক মাল্টি-লেভেল স্টেশনের বাইরের অংশ এবং স্টেশনের ভেতরের অংশটি হবে ঝকঝকে হীরে মতো। এটি আপনাদের সকলের জন্য সুরাটের বুলেট ট্রেন স্টেশনের প্রথম ঝলক।

মুম্বাই এবং আহমেদাবাদের মধ্যে চলা বুলেট ট্রেন রুটে 12টি স্টেশন থাকবে। 508 কিমি দীর্ঘ রুটে থাকবে সবরমতি, আহমেদাবাদ, আনন্দ, ভাদোদরা, ভরুচ, সুরাত, বিলিমোরা, ভাপি, বোইসার, ভিরার, থানে এবং মুম্বাই স্টেশন। এই ট্রেনটি 320 কিলোমিটার বেগে চলবে।

নির্মাণ সংস্থা ন্যাশনাল হাই স্পিড রেল কর্পোরেশন লিমিটেডের (NHSRCL) কর্মকর্তাদের মতে, 2024 সালের ডিসেম্বরের মধ্যে গুজরাটের ভাপি, বিলিমোরা, সুরাট এবং ভারুচের স্টেশন তৈরি করা হবে। এই চারটি স্টেশনের মধ্যে সুরাটে প্রথম স্টেশন প্রস্তুত হবে।

রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব গত বছরের ডিসেম্বরে বলেছিলেন যে, ভারতের প্রথম বুলেট ট্রেন 2026 সালে সুরাট এবং বিলিমোরার মধ্যে চলবে। সুরাট-বিলিমোরার সড়কের দূরত্ব 50 কিমি। বুলেট ট্রেনটি জাপানি শিনকানসেন প্রযুক্তিতে চালানো হবে। যা বিশ্বব্যাপী তার নির্ভরযোগ্যতা এবং নিরাপত্তা বৈশিষ্ট্যের জন্য বিখ্যাত।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button