লাইনে হাঁটতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কা খেলে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে! নিয়ম আসছে রেলে

ট্রেনের লাইন পারাপার করতে গিয়ে অনেকেই বিপদের মুখে পড়েন। কারো হাত পা কাটা যায় তো কেও ট্রেনের ধাক্কায় প্রাণ হারান। আর ট্রেন লাইনের ওপর হাঁটলেও মোটা অংকের জরিমানা দিতে হয়। সেই নিয়েই এবার এক গুরুত্বপুর্ন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বম্বে হাই কোর্ট। ট্রেন লাইন বা লাইন সংলগ্ন এরিয়াতে হাঁটার জন্য গুরুত্বপূর্ন নিয়ম জানিয়েছে মহামান্য আদালত।

উচ্চ আদালত এদিন রায় দেয় যে, স্টেশনে উপযুক্ত পরিকাঠামো ব্যবস্থা না থাকলে, অর্থাৎ ওভারব্রিজ বা আন্ডারপাস না থাকার কারণে যদি কেউ রেললাইনে হাঁটতে বাধ্য হন এবং তারপর যদি ট্রেনের সাথে তার ধাক্কা হয় তাহলে সমস্ত ক্ষয়ক্ষতি রেলকেই বহন করতে হবে।

এর আগে রেলওয়েল ক্লেইমস জানায় যে, রেল বাধ্য থাকবে না ক্ষতিপূরণ দিতে। কিন্তু রেলের সেই নির্দেশে খারিজ করে দেয় উচ্চ আদালত। আসলে এই ঘটনার সূত্রপাত এক ব্যক্তিকে ট্রেনের ধাক্কা মারার কারণে। রেলের কাছে এই নিয়ে ক্ষতিপূরণ চাইলে রেল পত্রপাঠ সেই আর্জি খারিজ করে দেয়। কিন্তু এবার বম্বে হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী ৬ সপ্তাহের মধ্যেই মৃতের পরিবারকে আট লক্ষ টাকা দেবে রেল।

এদিন বিচারপতি অভয় আহুজার জানান যে, ‘একজন ব্যক্তি যখন গ্রাম থেকে বৈধ টিকিট কেটে চাকরির সন্ধানে শহরে আসে… এরপর ট্রেন থেকে নেমে ওভারব্রিজ না থাকায় রেললাইন দিয়ে পারাপার করতে হয় তাঁকে। সেই সময় অন্য ট্রেনের ধাক্কায় মারা যান তিনি। এটাকে ইচ্ছাকৃত মৃত্যু বা অসতর্কতা কিংবা অবহেলা বলা যায় না।’

bombay high court

আসলে এই জীবনহানির কারণ রেলের উপযুক্ত পরিকাঠামো ব্যবস্থা না থাকা। তাই এইক্ষেত্রে ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য থাকবে রেল। প্রসঙ্গত ২০১৯ সালের রেল ট্রাইবুনাল বলে যে, রেওরাল স্টেশনে নিজের অসাবধানতার জন্য মারা যান মনোহর গজভিয়ে নামক ব্যক্তি। কিন্তু পরে আইনজীবি বলেন, তার মক্কেলের মৃত্যুর কারণ ওভারব্রীজ না থাকা। সেজন্য রেল কর্তৃপক্ষকে মোটা অংকের জরিমানা দিতে হয়।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button