বাবা দিনমজুর, নেই মা! বস্তির ছেলে পেল আড়াই কোটি টাকার স্কলারশিপ! পড়বে আমেরিকায়

ভারতে (India) যে প্রতিভার অন্তু নেই সেই কথা আবারো প্রমাণ করে দিলেন বিহারের এক ১৭ বছরের পড়ুয়া। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে পেয়েছেন দুর্দান্ত সাফল্য। আড়াই কোটি টাকার এক বিশাল স্কলারশিপ জিতে নিয়েছেন তিনি। এই স্কলারশিপ পাওয়ার জন্য তাকে দিতে হয়েছিল এক কঠিন পরীক্ষা আর সেখানে সারা বিশ্বে ৬ষ্ঠ স্থান অধিকার করেছে সে। আর এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েই সে পেয়ে গিয়েছে আমেরিকাতে পড়ার সুযোগ।

বিহারের ওই কৃতী ছাত্রের নাম প্রেম কুমার। তার বাড়ি পাটনা সংলগ্ন ফুলওয়ারি শরিফের গণপুরের মহাদলিত বস্তিতে। নিজের দক্ষতায় আমেরিকার লাফায়েট কলেজ থেকে আড়াই কোটি টাকার বৃত্তি পেয়েছে মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার জন্য। তার কাছে এই সাফল্য যেন চাঁদ পাওয়া। খুবই গরীব ঘরের পড়ুয়া প্রেম, তার বাবা করেন দিনমজুরের কাজ। এহেন দারিদ্র্য পীড়িত হয়েও এগিয়ে গিয়েছেন নিজের লক্ষ্যে।

ভারত থেকে মোট ৬ জনের নাম পাঠানো হয়েছিল, যার মধ্যে প্রেম একজন। আর সেই সুযোগকেই কাজে লাগিয়ে তিনি সাফল্যের দোরগোড়ায় পৌঁছে গেলেন। জানলে অবাক হবেন যে, এই কৃতী ছাত্রকে পড়াশোনা করতে হয়েছে ভাঙা বাড়িতে। বস্তির ঘন অন্ধকারের মধ্যে আলো জ্বেলে পড়তে হয়েছে তাকে। আর আজ সেই সমস্ত অন্ধকার কে দূরে সরিয়ে সাফল্যের আলোতে নিজেকে উন্মোচিত করেছেন তিনি।

prem 2

তবে তার এই সাফল্য দেখে যেতে পারলেন না তার মা। ১২ বছর আগে পক্ষাঘাতে মারা যান তিনি। এরপর তার বাবা দিনমজুরি করে অনেক কষ্টের মধ্যেও তার পড়াশোনা চালিয়ে গিয়েছেন। আর আজ তার সেই কষ্ট লাঘব হতে চলেছে। ভারত থেকে একমাত্র প্রেম এই আড়াই কোটি টাকার স্কলারশিপ পেয়েছে। প্রেম বলেন যে, ”আমরা অনেক সংগ্রাম করেছি, সংগ্রাম না থাকলে এই জায়গায় আসতে পারতাম না। আমি সুযোগ পেলেই পড়াশোনায় সময় দিয়েছি। আমার বাবা মাঠে কাজ করেন এবং আমার মা মারা গেছেন।” এই সাফল্যের কারণে এক দৃষ্টান্ত তৈরি করেছেন প্রেম। দেশের সামনে নামোজ্জ্বল করেছেন বিহারের।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button