একসঙ্গে ১৭টি বহুজাতিক কোম্পানির চাকরি! বাংলার পড়ুয়ার অসামান্য কীর্তিতে হতবাক সবাই

১৭টি চাকরি (Employment) পেয়ে সবাইকার তাক লাগিয়ে দিয়েছেন হাওড়ার (Howrah) বালির (Bally) বাসিন্দা অরিজিৎ রায়। তার এই অভাবনীয় সাফল্য দেখে রীতিমত শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজ্যজুড়ে। প্রসঙ্গত, অরিজিৎ চুঁচুড়ার হুগলি ইঞ্জিনিয়ার অ্যান্ড টেকনোলজি কলেজের ছাত্র।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, কলেজ ক্যাম্পাসিংয়ে পেয়েছেন কিছু চাকরি এবং কিছু তার নিজের উদ্যোগে। পড়াশোনা চলাকালীন যেখানেই সুযোগ আসতো সেখানেই চাকরির জন্য অ্যাপ্লাই করতেন তিনি। ইন্টারভিউতে হাজিরও হয়ে যেতেন। এইভাবেই গত দুই মাসে ১৭টি বহুজাতিক কোম্পানি থেকে নিয়োগপত্র পান তিনি। এই কোম্পানির তালিকায় রয়েছে, উইপ্রো, টিসিএস, ইনফোসিস, অ্যাকসেঞ্চার, বাইজুস-এর মতো বিভিন্ন নামিদামি সংস্থা। জানা যাচ্ছে, এই সব কোম্পানি ছাড়াও আরও কিছু কোম্পানির ফলাফল প্রকাশ হতে দেরি আছে এখনও।

তার এই অভাবনীয় সাফল্যের খবর ছড়িয়ে পড়তেই সাংবাদিক গিয়ে হাজির হন তার সামনে। এই প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে অরিজিৎ জানিয়েছেন, ‘‘প্রথম বর্ষ থেকে আমরা প্রতিটি বিষয় ভাল করে পড়েছি। বিশেষ করে কম্পিউটারের প্রোগ্রামিং বিষয়টি খুব ভাল করে শিখেছি। তাতে আমাদের খুব লাভ হয়েছে। এ ছাড়া অঙ্ক এবং অন্যান্য বিষয়গুলিও খুব ভাল করে পড়েছি। শুধু আমি নয়, আমার অনেক সহপাঠীদের অনেকেই বহু সংস্থার চাকরি পেয়েছে। আমাদের কলেজে প্রোগ্রামিং খুব ভাল করে শেখানো হয়েছে। এ জন্য আমরা কলেজকে ধন্যবাদ দেব।’’

অরিজিৎ-এর এই নজীরবিহীন কৃতিত্বের প্রসঙ্গে চুঁচুড়ার হুগলি ইঞ্জিনিয়ার অ্যান্ড টেকনোলজি কলেজের অধ্যক্ষ স্মিতধী গঙ্গোপাধ্যায়ের বক্তব্য, ‘‘করোনার জন্য অনেকের চাকরি চলে গিয়েছে এটা ঠিক। তবে আমাদের কলেজের পড়ুয়াদের চাকরির সুযোগ এসেছে। কলেজ বন্ধ থাকার সময় অনলাইনে পাঠ এবং প্র্যাকটিক্যাল ঠিক মতো হয়েছে। এ জন্য পড়ুয়াদের প্রশিক্ষণ এবং চাকরির ক্ষেত্রে অনেক উন্নতি হয়েছে।’’ যেখানে একটা কাজের জন্য হন্যে হয়ে ঘুরছে মানুষ সেখানে একসাথে ১৭টি চাকরি মানুষের চোখ ছানাবড়া করবে তা বলাইবাহুল্য।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button