সৌরভ গাঙ্গুলির ভাগ্য নির্ধারণ হবে আজ! অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় মহারাজের ভক্তরা

এতদিন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (Board of Control for Cricket in India) সমস্ত দায়ভার সামলেছেন সৌরভ গাঙ্গুলি (Sourav Ganguly) এবং জয় শাহ (Jay Shah)। কিন্তু এবার তারা সেখানে থাকতে পারবেন কিনা তাই নিয়ে বড়সড় প্রশ্নচিহ্ন উঠেছে। তবে মঙ্গলবার এই নিয়ে চূড়ান্ত শুনানি হতে চলেছে, সেখানেই জানা যাবে তারা আর বোর্ডের দায়িত্বে থাকবেন কিনা।

সুপ্রিম কোর্টে এই নিয়ে আবেদন হয়েছে, আর মঙ্গলবার তারই শুনানি হবে। আসলে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড আবেদন করেছে আইন সংশোধনের জন্য। সেখানে বোর্ড তাদের সভাপতি এবং সচিবের মেয়াদকাল সংশোধন করতে চেয়েছে। যদিও ওইদিনই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে কি না, তা অবশ্য এখনো জানা যায়নি।

আসলে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি আরএম লোধার নেতৃত্বে থাকা কমিটির রায়ে সুপ্রিম করত ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডে কিছু নয়া আইন নিয়ে আসে। সেখানে কোর্ট বাধ্যতামূলক তিন বছরের কুলিং-অফ পিরিয়ডের কথা জানিয়েছিল। তাই সৌরভ গাঙ্গুলি এবং জয় শাহ, দুজনেরই কুলিং অফে চলে যাওয়ার কথা।

কী এই কুলিং-অফ মোড: আসলে পরপর দুবার তিন বছরের মেয়াদ পূর্ণ করলে বোর্ডের দায়িত্বে থাকা কর্তাদের কুলিং-অফে যেতে হয়। স্পষ্ট কথায় এই দুজনে আর বোর্ডের ক্ষমতায় থাকতে পারবেন না। এবার সেই নিয়ম মেনে বোর্ড সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি এবং বোর্ড সচিব জয় শাহ দুজনকেই নিজেদের সংশ্লিষ্ট পদ ছেড়ে দিতে হবে।

কিন্তু BCCI এবার সেই আইন সংশোধন করতে চেয়ে আবেদন করেছে শীর্ষ আদালতে। যদি মহামান্য সুপ্রিম কোর্ট সেই আবেদনে সম্মতি দেয় তবেই নিজ নিজ পদে থাকতে পারবেন তারা, নতুবা তাদের পদ ছেড়ে দিয়ে নয়া সভাপতি এবং সচিব নির্বাচন করতে হবে।

supreme court sourav

BCCI অবশ্য নিজেদের সেই নিয়ম সংশোধন করে কুলিং-অফ আইনের অবসান করতে চায়। তার ফলে রাজ্য সংস্থায় ছ’বছর হয়ে যাওয়া সত্ত্বেও সৌরভ এবং জয়ের সভাপতি ও সচিব হিসাবে থাকতে কোনো অসুবিধা হবেনা। এই সংক্রান্ত আবেদন একজন রয়েছে বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় এবং হিমা কোহলীর কাছে। মঙ্গলবারই জানা যাবে তারা থাকছেন কিনা।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button