প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, জিতের সঙ্গেও সিনেমা করেছেন অর্পিতা! জানেন সেই ছবির নাম

রাজ্যজুড়ে সামনে এসেছে ব্যাপক দুর্নীতি। কোটি কোটি টাকা মিলেছে প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীর ‘বিশেষ’ ঘনিষ্ঠ বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের (Arpita Mukherjee) ফ্ল্যাট থেকে। পার্থ চ্যাটার্জীর সাথে গ্রেফতার হয়েছেন তিনিও। গ্রেফতারির আগে শনিবার দীর্ঘ জেরা করা হয় তাকে।

রাজনীতিতে তেমন পরিচিত মুখ না হলেও অভিনয় জগতে রয়েছেন বেশ কয়েক বছর ধরে। হঠাৎই সংবাদ শিরোনামে উঠে এসেছেন তিনি। কিন্তু কে এই অর্পিতা? এর আগে কার কার সাথে অভিনয় করেছেন তিনি?

জীবনের শুরুটা আর পাঁচটা সাধারণ মেয়ের মতোই, বেলঘরিয়ার দেওয়ানপাড়া এলাকাতে বাড়ি অর্পিতার। কয়েকটি বাংলা ছবিতে অভিনয় করলেও সেরকম আঁচড় কাটতে পারেননি তিনি। তবে ইন্ডাস্ট্রির একদম গভীরে ওঠাবসা শুরু হয়েছিল তার। সোশ্যাল মিডিয়াতেও তার ফ্যান ফলোয়িং কম নয়।

অভিনেত্রী হওয়ার নেশায় বুঁদ হয়ে ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখলেও শেষমেষ রাজনীতিতে ঘেঁষে সত্যিকারের নেত্রী হয়ে ওঠেন তিনি। ঘনিষ্ঠতা বাড়তে থাকে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতার সাথে। আগে সেভাবে সংবাদে না থাকলেও গত শুক্রবার থেকে সারা বাংলা তাকে একডাকে চিনে যায়। তার বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় কোটি কোটি ভারতীয় মুদ্রা আর সাথে লাখ লাখ টাকার বিদেশি মুদ্রা ও গয়না। সাথে রয়েছে প্রচুর সম্পত্তির দলিল।

অনেকেই হয়তো জানেন না, কিন্তু প্রসেনজিৎ-এর সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেছেন পার্থ চ্যাটার্জীর এই বিশেষ বান্ধবী। অনুপ সেনগুপ্ত পরিচালিত মামা-ভাগ্নে ছবিতে প্রসেনজিৎ এর সাথে দেখা যায় তাকে। সাথে জিৎ স্বস্তিকা অভিনীত পার্টনার ছবিতেও দেখা গিয়েছিল অর্পিতাকে। গত ২০১০ সালে অনুপ সেনগুপ্তর ছবি বাংলা বাঁচাওতে অভিনয় করেন এই অর্পিতা।

arpita

সেই সম্পর্কে অনুপ সেনগুপ্ত জানান যে, “তখন আর পাঁচটা মেয়ের মতো চোখে স্বপ্ন নিয়ে কলকাতা শহরে আসেন অর্পিতা। আমার সঙ্গে একটা মাত্র ছবি করে আসলে আমাদের ফিল্ম কোনও কিছুই আমাকে এখন আর আমাকে অবাক করে। কারণ আমার বিশ্বাস যে গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ড ও রাজনৈতিক জগৎ এমন দুটো ক্ষেত্র যেখানে পুরোটাই ফুল টাইম করতে হয়। আর দুটো জগৎ একসঙ্গে মিশেছে পরিণতি ভয়ঙ্কর হয়েছে, অর্পিতা তার সব থেকে বড় উদাহরণ।”এখানেই শেষ নয়, প্রতিদ্বন্দ্বী ছবিতে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন অর্পিতা।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button