পদ্মা সেতুর মুকুটে নয়া পালক, ২০ দিনেই গড়ে ফেলল ইতিহাস! এই নজির অন্য কারও নেই

বাংলাদেশের (Bangladesh) জেলাগুলোর মধ্যে যোগাযোগের উন্নতির কারণে শুরু করা হয় পদ্মা সেতু (Padma Multipurpose Bridge)। আর সেই সেতু থেকে থেকে গত ২০ দিনে মোট টোল আদায়ের অংক শুনে অনেকে চমকে উঠবেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই নজির অন্য কোনও সেতুই গড়তে পারেনি। কিন্তু একই সাথে সেতু নিয়ে চিন্তার ভাঁজও পড়েছে বাংলাদেশের।

জানা যাচ্ছে সেতু থেকে যেমন রেকর্ড আয় হচ্ছে, তেমনই সেখানে ঘটে চলছে একের পর এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। মৃত্যু যেন ছাড়ছেনা এই সেতুকে। কয়েকদিন আগেই সিলিন্ডারবাহী ট্রাক উল্টে মৃত্যু হয় দুজনার। গুরুতর আহত হয়েছেন আরো ৩ ব্যক্তি। এমনকি সেতু উদ্বোধনের দিনই মৃত্যু হয়েছে দুই তরুণের।

তবে সেতু থেকে যে পরিমাণ টোল আদায় হয়েছে তাতে বিরাট খুশি বাংলাদেশ সরকার। ২৫ জুন এই সেতু উদ্বোধন হয়, আর ২৬ জুন শুরু হয় যান চলাচল আর ২৬ জুন থেকে ১৫ জুলাই পর্যন্ত সেখানে টোল আদায় হয়েছে মোট ৫২ কোটি ৫৫ লক্ষ ৩৫ হাজার ৬৫০ টাকা। আর এতে বিরাট খুশি বাংলাভাষী দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উদ্বোধনের দিন সেতু মাওয়া প্রান্তের থেকে ৩১ হাজার ১৯৭টি গাড়ি ও জাজিরা প্রান্ত থেকে ৩০ হাজার ৬৩৯টি গাড়ি পারাপার হওয়ায় আয় হয়েছে ২ কোটি ৭৪ লক্ষ ৬৬ হাজার ৮৫০ টাকা। রোজই সেখান থেকে কোটি অংকে আয় হচ্ছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ প্রশাসন। একদিনের হিসেবে সর্বাধিক আয় গত ৮ জুলাই, সেদিন মোট ৪ কোটি ১৯ লক্ষ ৩৯ হাজার ৬৫০ টাকা আয় হয়েছে সেতু থেকে।

শুধু তাই না, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে আরো অত্যাধুনিক পদ্ধতি অবলম্বন করে টোল আদায় করার কথা ভাবছে বাংলাদেশ সরকার। এখনের সিস্টেমে ঘন্টায় ১,২০০ টি গাড়ি থেকে টোল আদায় করা সম্ভব হয়। আগামীতে যা বাড়ানোর লক্ষ্য রয়েছে বাংলাদেশ সরকারের।

padma bridge

প্রসঙ্গত এই সেতু তৈরিতে ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা খরচ হয়েছে বাংলাদেশ সরকারের। আর সেই টাকা তোলার জন্যই বসানো হয়েছে টোল প্লাজা। সেতুটি একদিকে যেমন রেকর্ড আয় করছে, তেমন একই সাথে দুর্ঘটনার নিরিখেও রেকর্ড গড়েছে তারা।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button