IBM-এ ৩০ লাখ টাকার চাকরি ছেড়ে শুরু করেন চাষ, আজ কোটি টাকার ব্যবসায়ী অজয়

কলকাতাঃ আজকের যুগে যেখানে তরুণরা দ্রুত শহরের দিকে পাড়ি জমাচ্ছে সেখানেই কেউ কেউ লাখ লাখ টাকার চাকরি ছেড়ে গ্রামে থেকে কৃষির দিকে ঝুঁকছে। উত্তরপ্রদেশের, মিরাট নিবাসী অজয় ​​ত্যাগী এমনই একটি নাম। বিশ্বের স্বনামধন্য বহুজাতিক কোম্পানি আইবিএম -এ ১৬ বছর কাজ করার পর হঠাৎ একদিন তিনি তার ৩০ লাখ টাকার বার্ষিক চাকরিকে বিদায় জানান এবং কৃষিকাজের উদ্দেশ্য নিয়ে গ্রামে ফিরে আসেন।

আজ তিনি শুধু একজন প্রগতিশীল কৃষকই নন, একজন সফল ব্যবসায়ীও। আসুন জেনে নেওয়া যাক‌ তার জীবন কাহিনী। উত্তরপ্রদেশের মিরাট শহরের এক মধ্যবিত্ত ঘরের ছেলে অজয়‌। পড়াশোনায় মেধাবী হওয়ায় বাবা মা তার পড়াশোনার প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দিতেন। প্রাথমিক পড়াশোনা শেষ হওয়ার পর, অজয় ​​মিরাটের কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়ে ভর্তি হন, যেখান থেকে তিনি তার দ্বাদশ শ্রেণি উত্তীর্ণ হন। এরপর স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করার পর কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশনে স্নাতোকত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। এরপর চাকরি নেন আইবিএম-এ।

ajay 5e732b7d41862

সমাজের আর পাঁচটা ছেলের চেয়ে বরাবরই একটু আলাদা অজয়‌‌। মেধা এবং কঠোর পরিশ্রমের কারণে দ্রুত পদান্নতি হয় অজয়ের। কর্মজীবনে সফল হলেও তার মন পড়ে থাকতো গ্রামে। অনেকবার মনস্থির করেন যে সবকিছু ছেড়ে গ্রামে ফিরে যাবেন। কিন্তু নানা কারণে তা আর হয়ে ওঠেনি। চোখের পলকে কখন ১৬ টা বছর পেরিয়ে গেলো তার বুঝতেই পারলেননা তিনি। অবশেষে মনস্থির করেই ফেললেন। কোম্পানির জেনারেল ম্যানেজারের পদে পৌঁছে সেখান থেকে ইস্তফা দেওয়া এতোটাও সহজ ছিলোনা।‌ প্রথম প্রথম পরিবারের সাপোর্টও পাননি তিনি।

img 20200306 wa0005 5e732b57d3036

চাকরি থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর গ্রামে ফিরে চাষাবাদে মনোনিবেশ করেন তিনি। এরজন্য তিনি গ্রামের কৃষক থেকে শুরু করে কৃষি বিজ্ঞানী এবং এমনকি অনেক জাতীয় জৈব চাষ কেন্দ্রে উপস্থিত কর্মকর্তাদের সাথে দেখা করেছেন। এরপর তিনি অর্গানিক মিডোজ প্রাইভেট লিমিটেড’-এ যোগ দেন। বিভিন্ন রাসায়নিক সার ব্যবহার করার ফলে চাষের জমি নষ্ট হয়ে যায় তাই তিনি একটি নির্দিষ্ট সময় অন্তর বিশেষজ্ঞদের দিয়ে মাটি পরীক্ষা করাতেন। এরপর নিজের খামার তৈরি করে জৈব পদ্ধতিতে চাষ শুরু করেন। অজয়ের দৃঢ় লক্ষ্য এবং পরিশ্রম তাকে প্রতিটি পদক্ষেপে সাফল্য এনে দিয়েছে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button