দীপাবলিতে এই কাজ করলে আর রক্ষে নেই, চরম শাস্তি দেবেন শ্রীলেখা! হুঁশিয়ারি অভিনেত্রীর

কালীপুজোর মরশুম সামনেই। আতশবাজি, আলোর রোশনাইতে মেতে উঠবে সারাদেশ। কিন্তু এইসময় সারমেয় বা কুকুরদের জন্য চরম আতংকের। অনেক দুষ্ট মানুষ কুকুরদের লেজে কলিপটকা বেঁধে পালিয়ে যান। কিন্তু এবার সেটি করলে সামনা করতে হবে শ্রীলেখা মিত্রের (Sreelekha Mitra) সাথে।

ফেসবুক রীতিমত হুঁশিয়ারি জারি করেছেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। কুকুরদের লেজে যদি কালিপটকা বেঁধে দেওয়া হয় তাহলে তিনি কাওকে রেয়াত করবেন না। শনিবার তিনি পৌঁছে যান টেট আন্দোলনকারীদের সমর্থন করতে। সেখানে শেষ বক্তব্য ছিল এটাই।

ফেসবুকে তিনি লিখেন, “এর মধ্যেই শব্দবাজির আওয়াজ পাওয়া যাচ্ছে। বয়স্ক মানুষদের এবং কুকুর-বিড়ালদের কথা ভেবে উৎসবের রাজ্যে একটু নাহয় উৎসব কম হোক। মানুষের তুলনায় ওরা অনেক বেশি শোনে। সবাই বেঁচে থাকুক। গতবারের মতো এবার যদি শোনা যায় কুকুরের লেজে বাজি ফাটানো হয়েছে তাহলে তাঁর খবর আছে। সাবধান করলাম।”

sreelekha fb post

আসলে শ্রীলেখা কুকুরদের নিজের সন্তানসম মনে করেন। তাই এই কুকুরদের ওপর অত্যাচার করলে তিনি যে কাওকেই ছেড়ে কথা বলবেন না সেই ব্যাপারে হুঁশিয়ারি দেন তিনি। এদিকে সেই নিয়ে তৎপর কলকাতা পুলিশও। তারা নজরে রাখবে এই সময়ে যাতে জন অপরাধ ঘটে।

কলকাতা পুলিশ তৈরি শব্দবাজি বা পরিবেশ দূষণকারী বাজি বিক্রি বা কেনা রুখতে। পরিবেশ বান্ধব বাজি বা আতসবাজি বিক্রির ক্ষেত্রে অবশ্য কোনো বাধা নেই। সেইসাথে পুলিশ হাই কোর্টের নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে মেনে চলেছে। সেই নিয়ে বড় পদক্ষেপ নিয়েছে কলকাতা পুলিশ।

জানা যাচ্ছে, যে গত দুদিনে প্রায় সাড়ে সাত হাজার কিলো নিষিদ্ধ বাজি বাজেয়াপ্ত করেছে কলকাতা পুলিশ। শুধু তাই না, উৎসবের মরশুমে কলকাতা শহরজুড়ে সাড়ে সাড়ে চার হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হবে। নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button