রাশিয়ার থেকে তেল কিনে বাঁচল ৩৫,০০০ কোটি টাকা! S-400 সিস্টেম বিনামূল্যেই পেল ভারত

রাশিয়া (Russia) ইউক্রেন (Ukraine) যুদ্ধ চলেছে আজ ৭ মাসেরও বেশি হয়ে গেল। রাশিয়া ইউক্রেন তো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েইছে, কিন্তু যে দেশগুলো যুদ্ধের সাথে জড়িত নয় সেই দেশগুলোর অবস্থাও ভালো নয়। জ্বালানি তেল থেকে শুরু করে খাদ্যশস্য সবের দাম বেড়েছে হু হু করে। আর তারই মধ্যে বিশ্ববাসীর নজর ছিল উজবেকিস্তানের সমরকন্দে অনুষ্ঠিত Shanghai Cooperation (SCO) গ্রুপের মিটিংয়ে। সেখানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সাক্ষাৎ ছিল প্রধান আকর্ষণ।

সেখানে প্রধানমন্ত্রী মোদী যুদ্ধ বন্ধ করা নিয়ে পরামর্শ দেন ভ্লাদিমির পুতিনকে। এই মিটিংয়ের সময়টা এমন যে, পশ্চিমা দেশগুলো নিজেদের লাজলজ্জার মাথা খেয়ে রাশিয়ার থেকে তেল কেনার জন্য দোষারোপ করতে শুরু করেছে ভারতকে (India)। ভারতকে তারা প্রশ্নবাণে জর্জরিত করেছে যে, কেন ভারত রাশিয়ার থেকে তেল কিনছে? এদিকে এখনো রাশিয়ার সবথেকে বড় গ্রাহক যে ইউরোপীয় দেশগুলো সেদিকে খেয়াল নেই তাদের।

   

জানা যাচ্ছে যে, রাশিয়া থেকে তেল কিনে এই সময়ের মধ্যে ভারত ৩৫,০০০ কোটি টাকার সেভিংস করে নিয়েছে। পশ্চিমা দেশগুলো প্রথম দিন থেকে ভারতের এই পদক্ষেপের বিরোধিতা করে এসেছে। কিন্তু ভারত সেসব কথাকে পাত্তা না দিয়ে নিজেদের স্বার্থে রাশিয়ার থেকে ব্যাপক হারে তেল আমদানি করেছে। যেখানে প্রথম ত্রৈমাসিকে ৬.৬ মিলিয়ন টন অপরিশোধিত তেল আমদানি হয়েছিল রাশিয়া থেকে সেখানে দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে সেই পরিমাণ বেড়ে দাঁড়ায় ৮৪.২ মিলিয়ন টনে। প্রতি ব্যারেলে ৩০ ডলার ছাড় পাওয়ায় ভারত এত সেভিংস করতে পেরেছে।

যেখানে প্রথম ত্রৈমাসিকে ৭৯০ ডলার খরচ করতে প্রতি ব্যারেলের জন্য সেখানে দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে ওই দাম নেমে আসে ৭৪০ ডলারে। এর ফলে ভারত মোট ৩৫ হাজার কোটি টাকার সুবিধা পেয়েছে। ২০২২ সালে রাশিয়া থেকে সস্তা তেল আমদানির পরিমান বেড়েছে প্রায় ১০ গুণ। তেলের কারণেই ভারতের সাথে রাশিয়ার বাণিজ্য রেকর্ড উচ্চতায় পৌঁছেছে। রাশিয়ার থেকে তেল কেনার ক্ষেত্রে চিনের পরই রয়েছে ভারতের স্থান।

রেকর্ড সংখ্যায় তেল রপ্তানি করে ভারতের দ্বিতীয় বৃহত্তম তেল সরবরাহকারী দেশ হয়ে ওঠে রাশিয়া। মূলত সৌদি আরবকে পিছনে ফেলে এগোয় তারা। এপ্রিল-জুলাই মাসে রাশিয়া থেকে ভারতের তেল আমদানি বেড়েছে আট গুণ। পূর্ববর্তী সময়ে ১.৩ বিলিয়ন ডলার থাকলেও এখন সেই মূল্য বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১.২ বিলিয়ন ডলার। মাসের পর থেকেই ভারতে রেকর্ড সংখ্যায় তেল রপ্তানি করেছে রাশিয়া।

s 400

ভারতকে এই সময়ে নিজেদের অর্থ ব্যবস্থা ঠিক রাখতে অনেকটা সাহায্য করেছে রাশিয়ান তেল। তাছাড়া জানলে অবাক হবেন যে, ভারত রাশিয়া থেকে যে অত্যাধুনিক S-400 সিস্টেম কিনেছিল তার দাম ছিল ৩৫,০০০ কোটি টাকা, আর রাশিয়া থেকে তেল কিনে ভারত ঠিক ওই পরিমাণ টাকাই বাঁচিয়ে নিয়েছে। তাই এক কথায় বলা চলে যে, ভারত প্রায় বিনামূল্যেই পেয়ে গিয়েছে ওই অস্ত্র। তাছাড়া ভারত আর রাশিয়া বাণিজ্য করার সময় ডলারকে এড়িয়ে চলায় আন্তর্জাতিক বাজারে কিছুটা হলেও স্বাস্থ্যকর জায়গাতে রয়েছে রুপি।

সম্পর্কিত খবর